বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রাজস্থান-দিল্লিতে মাঙ্কিপক্সের রোগী চিহ্নিত

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২২, ১৪:২৮

ভারতের কেরালায় মাঙ্কিপক্সে একজনের মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যটিতে এখন পর্যন্ত পাঁচজনের শরীরের মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এই দিয়ে দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা সাত। খবর এনডিটিভির। 

এছাড়া দেশটির রাজস্থান এবং দিল্লিতেও ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। কেরালায় বেশ বেশ কিছু মানুষের শরীরে মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ মিলেছে। তাদের সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা চলছে। মাঙ্কিপক্সের রোগীর কীভাবে মৃত্যু হলো, তা নিয়ে গবেষণা শুরু হয়েছে। তারই মধ্যে রাজস্থান এবং দিল্লিতেও দুই ব্যক্তির শরীরে মাঙ্কি পক্সের সংক্রমণ মিলেছে।

রাজস্থানে এক ২০ বছর বয়সির শরীরে মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ মিলেছে। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি জ্বরে ভুগছিলেন। কয়েকদিনের মধ্যে তার গায়ে গুটি বার হতে শুরু করে। স্থানীয় একটি হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। তার রক্তের নমুনা পাঠানো হয় পুনের বিশেষ পরীক্ষাগারে। সেখানেই তার শরীরে মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ মেলে। এরপরেই ওই ব্যক্তিকে সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হলো, ওই ব্যক্তি বিদেশ থেকে ফেরেননি। কোনো বিদেশির সঙ্গে তার যোগাযোগও হয়নি। 

বস্তুত,দিল্লিতেও যে ব্যক্তির শরীরে সম্প্রতি মাঙ্কিপক্সের জীবাণু মিলেছে, তিনি গত বেশ কিছুদিনের মধ্যে বিদেশ যাননি। তবে তিনি আফ্রিকার নাগরিক। দিল্লির আরো বেশ কিছু ব্যক্তির শরীরে মাঙ্কি পক্সের জীবাণু থাকতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

কেরালায় যাদের শরীরে মাঙ্কিপক্স পাওয়া গেছে, তারা অবশ্য সকলেই বিদেশ থেকে এসেছিলেন। বেশ কয়েকজন আপাতত সুস্থ বলে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে। তবে মাঙ্কি পক্স যে ছড়াতে শুরু করেছে, তা জানিয়েছে প্রশাসন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ইতিমধ্যেই মাঙ্কি পক্স নিয়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে।

মাঙ্কিপক্স নিয়ে মানুষের মধ্যে বেশ কিছু ভুল ধারণা আছে। বহু জায়গায় বলা হচ্ছে, এটি একটি নতুন ভাইরাস।

 বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, আফ্রিকায় এই ধরনের ভাইরাস এর আগে ছিল। তবে ভারতে এই প্রথম তার প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে। গুটি বসন্ত বা স্মল পক্সের টিকায় এই রোগের চিকিৎসা সম্ভব বলেও চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন। 

তবে রোগটি নিয়ে সচেতন থাকতে হবে বলে জানাচ্ছেন তারা। এই রোগ ছোঁয়াচে। ফলে এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা প্রয়োজন বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। তবে করোনার মতো এই রোগ অত দ্রুত ছড়াতে পারে না বলেও আশ্বস্ত করেছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। 

ইত্তেফাক/এসআর