বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ২ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মিঠাপুকুরে ঘাঘট নদীর ভাঙনে বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি

আপডেট : ০৬ আগস্ট ২০২২, ১৯:৫০

মিঠাপুকুরে ঘাঘট নদের ভাঙনের কবলে পড়েছে ৫০০ বছরের পুরোনো কবরস্হান ও মসজিদ। এছাড়াও নদীতে বিলীন হয়েছে ১০০ একর ফসলি জমি ও বসতভিটা। এতে নিদারুণ কষ্টে জীবনযাপন করছেন ঘাঘটপাড়ের মানুষরা।

তাদের অভিযোগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এইচ এন আশিকুর রহমান এমপি ভাঙন রোধে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য ডিও লেটার প্রদান করলেও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি পানি উন্নয়ন বোর্ড। এর ফলে চলতি মৌসুমে ফের ভাঙনের আশঙ্কায় রয়েছে বালারহাট ইউনিয়নের খোর্দ্দ কোমরপুর ও বুজরুক কোমরপুর ঘাঘটপাড় গ্রামের মানুষ। 

ঐ গ্রামের বাসিন্দা ও সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন বলেন, খোর্দ্দ কোমরপুর ও বুজরুক কোমরপুর গ্রাম মিলে ঘাঘটপাড় নামে একটি পাড়া। এই গ্রামে প্রায় ৫০০ বছর আগেকার একটি কবরস্হান ও মসজিদ রয়েছে। কয়েক বছরের নদীভাঙনের ফলে কবরস্থানের প্রায় অর্ধেকটা নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। দুই-এক বছরের মধ্যে পুরোটা বিলীন হওয়ার আশঙ্কায় রয়েছি আমরা।

এ বিষয়ে রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মো. আমিরুল হক ভূঞা বলেন, আমরা ডিও লেটার পেয়েছি। সরেজমিনে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে। 

ইত্তেফাক/এআই