বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সাকিবের বিষয়ে কঠোর বিসিবি

আলোচনার পর সিদ্ধান্ত নেব: পাপন

আপডেট : ১২ আগস্ট ২০২২, ০৫:৫৯

জিম্বাবুয়ে সফরে রীতিমতো নাক কাটা গেছে বাংলাদেশ দলের। র‍্যাকিংয়ের তলানিতে দলটা টি-২০ ও ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে সিরিজ হারের লজ্জা উপহার দিয়েছে। সেই বাজে পারফরম্যান্সের আলোচনা চাপা পড়ে গেছে সাকিব আল হাসানের কারণে। মাঠে না থেকেও গত এক সপ্তাহ দেশের ক্রিকেটে সবচেয়ে আলোচিত চরিত্র ছিলেন তিনি।

গত ২ আগস্ট জুয়াড়ি প্রতিষ্ঠান বেটউইনার নিউজের সঙ্গে চুক্তি করেছিলেন সাকিব, যা দেশের ও বিসিবির আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। গতকাল বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এই ইস্যুতে কঠোর অবস্হানের কথা জানিয়েছিলেন। বাংলাদেশ, নাকি বেটউইনার নিউজ—সিদ্ধান্তের ভার তথা বল সাকিবের কোর্টে পাঠিয়েছিল বিসিবি।

বিসিবির অনড় ও কঠোর নীতিতে নিজের অবস্হান থেকে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছেন সাকিব। গতকাল সন্ধ্যায় বেট উইনারের সঙ্গে বিতর্কিত চুক্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত বিসিবিকে জানান তিনি। এবং বিসিবিকে লিখিত চিঠি দিয়েছেন। গতকাল ইত্তেফাককে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন।

বিসিবির সভাপতিও সংবাদমাধ্যমকে সাকিবের লিখিত চিঠি পাওয়ার কথা জানিয়েছেন। চিঠিতে চুক্তি বাতিলের কথা রয়েছে। পাপন বলেছেন, ‘আমি শুনলাম চিঠি দিয়েছে। আমি এখনো পড়িনি। ও আমাদের সব নিয়ম-শর্ত মানতে রাজি।’ শুধু এখানেই শেষ নয়, বেটউইনারের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে সাকিবকে। এমনকি চুক্তির বিষয়ে ফেসবুকে দেওয়া পোস্টও সরিয়ে ফেলতে হবে।

সাকিবের চিঠি পেলেও কিছু আলোচনার অবকাশ রয়ে গেছে। বিসিবির সভাপতি সামনাসামনি বসে এই চুক্তির ব্যাখ্যা জানতে চাইবেন অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের কাছে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন সাকিব। ফিরবেন আজ (১২ আগস্ট)। পরদিনই তার সঙ্গে বসতে চান বিসিবির সভাপতি। তার পরই সিদ্ধান্ত নিতে চান তিনি।

পাপন বলেছেন, ‘সাকিব ১২ তারিখ (আজ) রাতে দেশে ফিরবে। ১৩ তারিখ সকালে আমি ওর সঙ্গে বসব। সব জেনেশুনে ও কেন এমন একটা কাজ করল, এর ব্যাখ্যা অবশ্যই ওকে দিতে হবে। টেলিফোনে তো আর এত কথা বলা যায় না। আমি তাই ওর সঙ্গে সামনাসামনি বসে কথা বলার অপেক্ষায় আছি। এরপর যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেব।’ সব মিলিয়ে গত কয়েক দিনের চলমান ঝড় আপাতত থেমেছে। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি বলেছিলেন, বাংলাদেশের হয়ে খেলতে হলে সাকিবকে বেটউইনারের চুক্তি বাতিল করতে হবে। সেটা করেছেনও তিনি। তাই এশিয়া কাপে তার খেলা নিয়ে আর সংশয় রইল না। আজই ঘোষণা হতে পারে বাংলাদেশ দল। এত আলোচনা-সমালোচনার পরও হয়তো এশিয়া কাপে বাংলাদেশের অধিনায়কের দায়িত্বটা এই বাঁহাতি অলরাউন্ডারের ওপরই বর্তাবে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন