শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২২, ১৬:২৪

জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভার আয়োজন করেছে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সোমবার (১৫ আগস্ট) ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অডিটোরিয়ামে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আগত অতিথিবৃন্দ অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ-বাঙালি, জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ উত্তম কুমার পালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ডাঃ সৈয়দ আনোয়ার হোসেন ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার’ অধ্যাপক, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস এবং সাবেক চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক, ইতিহাস বিভাগ, ঢাকা-বিশ্ববিদ্যালয়।

এসময় ডাঃ উত্তম কুমার বলেন, ইতিহাসের জঘন্যতম, নৃশংস হত্যাকান্ড ঘটে ১৯৭৫ সালের এই কালো রাতে। এ দিন গোটা বাঙালিজাতিকে কলঙ্কিত করেছিল সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী সদস্য। ঘাতকের নির্মম বুলেট বিদ্ধ করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুরের বুক। সেদিন ঘাতকের হাতে প্রাণ হারান বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গ-মাতা বেগম ফজিলাতুননেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর বড় ছেলে শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল, পুত্রবধূ সুলতানা কামাল, রোজী জামাল, ভাই শেখ নাসের, কর্নেল জামিল। দেশের স্বাধীনতাকে মুছে ফেলতে চেয়েছিল এরা।

এসময় তিনি আরও বলেন, সকল চক্রান্তও ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, আরও এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সমকালের সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন মঞ্জু, এবং ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআই এর পরিচালক প্রীতি চক্রবর্তী সিআইপি। তারা তাদের পৃথক পৃথক বক্তব্যে ভয়াল এই কালো রাতের নির্মমতার কথা আবেগ তাড়িত কণ্ঠে স্মরণ করেন। 

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ আশীষ কুমার চক্রবর্তী। তিনি তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ব্রতী হয়ে সকলের জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে সুসংগঠিত বাংলাদেশ গড়বার দৃঢ় প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মেডিকেল কলেজের রেডিওলজি এন্ড ইমেজিং বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান ভূঁইয়া।

ইত্তেফাক/এএইচপি