শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সিরাজগঞ্জে পাটখড়ির কদর বেড়েছে

আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭:১৮

সিরাজগঞ্জে পাটখড়ির কদর বেড়ে চলেছে। আগে এই খড়ি শুধু জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হলেও বর্তমানে তা বিভিন্ন স্থানে ব্যবহার হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় জ্বালানি, পার্টিকেল বোর্ড মিলে, হস্তশিল্পজাত বিভিন্ন পণ্য তৈরিতে। জেলার কৃষকরা পাট বিক্রির সঙ্গে সঙ্গে খড়ি বিক্রি করেও বেশ লাভবান হচ্ছেন। 

জেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষকরা জানান, রোদে পাটখড়ি ভালোভাবে শুকানোর পর ব্যবসায়ীরা বাড়ি থেকে তা কিনে নিয়ে যায়।

সিরাজগঞ্জ কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, জেলার ৯টি উপজেলায় এ বছর পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৬ হাজার ৮৪০ হেক্টর জমিতে। চাষের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে ১২ হাজার ৩৬৪ হেক্টর জমিতে।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার পোড়াবাড়ি গ্রামের পাটচাষি আবু ইউসুফ জানান, এক বিঘা জমির পাট থেকে যে পাটখড়ি পেয়েছি সেগুলো শুকিয়ে পরিষ্কার করে বিক্রি করতে পারলে তা থেকে ১০/১২ হাজার টাকা আয় করা যাবে।

জারিলা গ্রামের পাটচাষি আহসান আলী জানান, পাটখড়ির চাহিদা ভালো থাকায় বেশ ভালো দাম পাওয়া যাচ্ছে।  

সিরাজগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক বাবলু কুমার সূত্রধর বলেন, জেলায় উৎপন্ন পাটের গুণমান ভালো হওয়ায় এর চাহিদা দেশব্যাপী। পাশাপাশি পাটখড়িও দেশের বিভিন্ন পার্টিকেল বোর্ড মিলসহ বিভিন্ন হস্তশিল্পে ব্যবহার হয়। তাছাড়া এর ছাই কম্পিউটারের কালি হিসেবেও ব্যবহৃত হয়। 

ইত্তেফাক/এআই