মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চীনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান মার্কিন কমান্ডারের 

আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭:৩৫

তাইওয়ানের আশেপাশে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ ও নজিরবিহীন সামরিক মহড়ার জন্য চীনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন এক কর্মকর্তা। যুক্তরাষ্ট্রের একজন শীর্ষ সামরিক কমান্ডার মঙ্গলবার এই আহ্বান জানান। খবর  এনডিটিভির। 

সম্প্রতি মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ও একটি কংগ্রেসের প্রতিনিধি দলের তাইওয়ান সফরের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় বেইজিং। এর জবাবে তাইওয়ানের চারপাশে বিশাল বিমান ও সমুদ্র মহড়া করেছে চীন।

তাইওয়ানের সমুদ্রে একাধিক ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে বেইজিং। যা বিশ্বের ব্যস্ততম শিপিং রাস্তাগুলোর মধ্যে কয়েকটি। ১৯৯০-এর পর এই প্রথম চীন এমন পদক্ষেপ নিয়েছে। 

যুক্তরাষ্ট্রের সপ্তম ফ্লিট কমান্ডার ভাইস অ্যাডমিরাল কার্ল থমাস সিঙ্গাপুরে সাংবাদিকদের জানান, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যেন তারা এই ধরণের কার্যকলাপের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। তারা জানেন চীনা তাইওয়ানের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করছে। 

তিনি আরও বলেন, এটি হতে দেওয়া যাবে না ও এর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। তাইওয়ানের ওপর দিয়ে আন্তর্জাতিক জলসীমায় ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা দায়িত্বজ্ঞানহীন। এখানে শিপিংলেন, যেখানে বিনামূল্যে শিপিং চলে। 

যুক্তরাষ্ট্রের সপ্তম নৌবহরটি জাপানে অবস্থিত। এটি প্রশান্ত মহাসাগরে ওয়াশিংটনের নৌবাহিনীর উপস্থিতির একটি মূল অংশ। 

থমাস তাইওয়ানের বিরুদ্ধে হুমকিকে দক্ষিণ চীন সাগরের সঙ্গে তুলনা করেছেন। সেখানে বেইজিং কয়েক বছর ধরে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ দ্বীপগুলোতে সামরিক ঘাঁটি ও স্থাপনা নির্মাণ করেছে। যদিও বেইজিং এই তথ্য অস্বীকার করেছে। 

তিনি আরও বলেন, তারা যদি এর প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করেন তাহলে হঠাৎ করেই দক্ষিণ চীন সাগরের দ্বীপগুলোর মতো তাইওয়ানও চীনের সামরিক ঘাটিতে পরিণত হয়ে যেতে পারে।  

ইত্তেফাক/এসআর