রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফুলবাড়ীতে ধানের আমদানি কম

আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৫:৩২

দিনাজপুর জেলার শস্যভান্ডারখ্যাত ফুলবাড়ী উপজেলার বাজারগুলো প্রায় ধানশূন্য। ভালো দাম থাকলে বাজারে আমদানি কম। 

জানা যায়, গত ইরি-বোরো মৌসুমে অতিরিক্ত ঝড়বৃষ্টির কারণে জমি থেকে ধান ঘরে তুলতে পারেননি কৃষক। ফলে কৃষকের গোলা খালি থাকায় চড়া দামের সুফল পাচ্ছেন না।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, বোরো মৌসুমে ১৪ হাজার ১২০ হেক্টর জমিতে ধান রোপণ করা হয়। শুরুতেই ঝড় ও ভারী বৃষ্টির কারণে জমিতেই পচে নষ্ট হয় ধান গাছ। এতে ব্যাপক ফলন বিপর্যয়ে পড়ে কৃষকরা। ধান কাটার শুরুতেই জিরাশাইল প্রতি মণ ১০০০-১২০০ টাকা মণ দরে বিক্রি হয়েছিল। একই দামে বিক্রি হয়েছে কাটারিভোগও। সেই জিরাশাইল এখন এক মণ ১১০০-১৬২০ টাকা মণ দরে বিক্রি হচ্ছে।

আটপুকুরহাটের ধান-চাল আড়তদার আলাউদ্দিন বলেন, প্রতি বছর এ সময় প্রতি হাটে প্রায় ৫-৭ হাজার মণ ধান আমদানি হলেও এখন ১-২ হাজার মণও আমদানি হচ্ছে না। 

ধান বিক্রি করতে আসা নূরে আলম সিদ্দিক বলেন, তিনি তার ৭ বিঘা জমিতে বোরো ধান রোপণ করেছিলেন। ঝড়বৃষ্টির কারণে মাত্র দুই-তিন বিঘা জমির ধান ঘরে তুলতে পেরেছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রুম্মান আক্তার বলেন, বৈরী আবহাওয়ায় জমিতেই ধান নষ্ট হওয়ায় এখন কৃষকের গোলায় ধান নেই। 

ইত্তেফাক/এআই