বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নিদাহাস ট্রফির পুরনো বারুদ জ্বলবে আজ! 

আপডেট : ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩:২২

ক্রিকেটীয় লড়াইয়ে শ্রীলঙ্কা কখনোই বাংলাদেশের চির প্রতিদ্বন্দ্বী পর্যায়ের ছিল না। তবে ২০১৮ সালের নিদাহাস ট্রফির সেই ম্যাচের পর থেকে যেন লঙ্কানদের সঙ্গে এক অঘোষিত প্রতিদ্বন্দ্বিতার লড়াইয়ে নাম লিখিয়েছে টাইগার বাহিনী। নিদাহাস ট্রফির সেই ম্যাচের পর থেকে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মাঠের লড়াই পেয়েছে অন্যরকম উত্তেজনার মাত্রা।

আজ এশিয়া কাপে নিজেদের বাঁচা-মরার লড়াইয়ে একে-অপরের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা। নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে হেরে দুই দলই রয়েছে কোণঠাসা অবস্থায়। আজ যে দল হারবে তার জন্য এখানেই শেষ এবারের এশিয়া কাপের যাত্রা, আর জিতে গেলে সামনে সুপার ফোরের হাতছানি। এমতাবস্থায় দুই দেশের ভক্ত সমর্থকদের স্মৃতির দরজায় আবারও কড়া নাড়ছে নিদাহাস ট্রফির সেই ম্যাচ। আজকের মতো সেদিনের সেই ম্যাচটিও ছিল দুই দলের জন্য অঘোষিত ফাইনাল।

সেদিন লঙ্কানদের মাটিতেই তাদের হারিয়ে শেষ হাসি হেসেছিল বাংলার টাইগার বাহিনী। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে বাঙালিদের সেদিনের সেই নাগিন ড্যান্সের জ্বালা হয়তো আজও শুকোয়নি লঙ্কানদের মন থেকে। আজ কি হবে সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি নাকি প্রতিশোধ নেবে লঙ্কানরা?

আজকের ম্যাচে মাঠে নামার আগে কথার লড়াইয়ে অবশ্য কেউ কাউকে একবিন্দু ছাড় দিতেও নারাজ। আফগানিস্তানের কাছে হারের পরই লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকা তো এক প্রকার হুমকিই দিয়ে রেখেছেন বাংলাদেশের জন্য। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে শানাকা জানিয়েছিলেন, ‘আফগানিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলাটা আরেকটু সহজই হবে, বাংলাদেশের সাকিব ও মুস্তাফিজ ছাড়া তেমন বিশ্বমানের কোনো বোলারই নেই।’

লঙ্কান অধিনায়কের এই বক্তব্যকে ভালো নজরে দেখেনি বাংলাদেশের আপামর ভক্ত সমর্থক থেকে শুরু করে ক্রিকেট বোদ্ধারাও। কেউ কেউ শানাকার এই কথাকে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস বলে আখ্যা দিয়েছেন। আবার কেউ মনে করছেন আফগানিস্তানের কাছে হারের পর নিজেদের অবস্থান জানান দিতে এবং আলোচনায় থাকার কৌশল হিসেবেই এমন উত্তেজনাকর কথা।

এদিকে, লঙ্কান অধিনায়কের এই কথার জবাবে ম্যাচের আগের দিন বাংলাদেশের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘আমাদের তবুও সাকিব-মুস্তাফিজ মিলে দুজন বিশ্বমানের বোলার রয়েছে, শ্রীলঙ্কা দলে তো বরং কোনো বোলারই নেই। আমি তো এমন কাউকেই দেখি না।’

দুই দলের এই কথার লড়াইয়ের পর আজ দুবাইতে মাঠের লড়াইয়েও কতখানি উত্তেজনার বারুদ ছড়াবে সেটা নিয়েই এখন যত জল্পনা-কল্পনা। উত্তেজনায় ঠাসা নিদাহাস ট্রফির সেই ম্যাচের মতোই আরেকটি লড়াইয়ের অপেক্ষায় দুই দেশের অগণিত ক্রিকেট ভক্ত।

আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় দুবাইয়ের স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে দুই দল। 

ইত্তেফাক/এসএস/এইচএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন