বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ধৈর্যশক্তি-সাহস-সততা দিয়েই কনা আজ সফল

আপডেট : ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:৪১

ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ের ওপর স্নাতক সম্পন্ন করে চাকরির পেছনে না ছুটে নিজেই কিছু করার ইচ্ছা জাগে শরিফা আক্তার কনার। নিজের ফ্যাশন ডিজাইনের জ্ঞান কাজে লাগিয়ে চালু করেন ‘ড্যাজেল ব্লু’ নামের প্রতিষ্ঠান।

শরিফা আক্তার কনার প্রতিষ্ঠানটির কাজের পরিধি এখন অনেক বেড়েছে, তৈরি হয়েছে কর্মসংস্থান। শুধু ব্যবসাই নয়, কনা একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতার পেশায়ও যুক্ত।

সফল এই নারী উদ্যোক্তা বলেন, উদ্যোক্তা হওয়ার শুরুটা সহজ ছিল না। তাড়াতাড়ি বিয়ে হয়ে যাওয়ায় পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। তবু স্বপ্ন দেখা ছেড়ে দেননি তিনি।

স্বপ্নকে বাস্তবে পরিণত করতে অনুপ্রেরণা জোগায় তার পরিবার ও শিক্ষকরা। তাদের অনুপ্রেরণায় নতুন করে শুরু করেন নিজের স্বপ্নপূরণে এগিয়ে চলা। পরিবার–সংসার সামলে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়াটা কঠিন। কিন্তু সঠিক পরিকল্পনা, অধ্যবসায় ও পরিশ্রম থাকলে সবই সম্ভব বলেন জানা তিনি।

কনা জানিয়েছেন, প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই ‘ড্যাজেল ব্লু’ মেয়েশিশুদের পোশাক নিয়ে কাজ করা শুরু করে। আমাদের দেশে মেয়েশিশুদের পোশাক অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেশের বাইরে থেকে আনা হয়। দেশীয় ডিজাইনে মেয়েশিশুদের পোশাকের চাহিদা দেশে অনেক। সেই চাহিদা পূরণ করতে দেশেই মেয়েশিশুদের আরামদায়ক পোশাকের ডিজাইন, কোয়ালিটি নিয়ে কাজ করছে আমার প্রতিষ্ঠান।

নিজের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের গল্প বলতে গিয়ে কনা বলেন, মেয়েশিশুদের পোশাকের চাহিদা পূরণে ইতোমধ্যে পরিচিতি পেয়েছে ‘ড্যাজল ব্লু’। তাদের দুটি আউটলেট আছে উত্তরায়। এ ছাড়া অনলাইন প্ল্যাটফর্ম তো আছেই। ১০ বছরে ৪০ জনের বেশি মানুশেষ কর্মসংস্থান করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। মেয়েশিশুদের পোশাক রপ্তানি করার স্বপ্ন নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। ১০ বছরের প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠানটি ক্রেতাদের কাছে বিশ্বস্ত নামে পরিণত হয়েছে।

উদ্যোক্তা হতে হলে কাজের প্রতি ভালোবাসা, শ্রদ্ধাবোধ অত্যাবশকীয় বলে মনে করেন কনা। সফল উদ্যোক্তা হওয়ার পথে বাধা অতিক্রম করে ধৈর্য, শক্তি, সাহস, বিশ্বাস আর সততা দিয়ে স্বপ্নপূরণ করা সম্ভব বলে বিশ্বাস তার।

ইত্তেফাক/এসটিএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন