রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মাদার তেরেসা পদক পেলেন তরফদার রুহুল আমিন

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:০৪

জাতীয় ক্রীড়া ফেডারেশন ফোরাম তরফদার রুহুল আমিনের মাদার তেরেসা আন্তর্জাতিক পুরস্কার পদক প্রাপ্তি উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। পল্টনস্থ হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে ক্রীড়াঙ্গনের মিলনমেলায় পরিণত হয়। 

এই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ফেডারেশন,জেলা-বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা সহ বিশিষ্ট ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত হয়ে তাকে অভিবাদন জানান। সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে বেশ উচ্ছ্বাসিত তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘আজকের অনুষ্ঠান আয়োজন দেখে সত্যিই আমি অভিভূত, আনন্দিত। আজকে ক্রীড়াঙ্গন কিন্তু এক জায়গাতে এসে দাঁড়িয়েছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে দীর্ঘদিন ধরে খেলাধুলাকে এগিয়ে নিতে কাজ করে যাচ্ছি এবং আজকের যে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আমাকে যে মাদার তেরেসা আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়েছে এটি আমার একার না। আপনাদের সকলের, বাঙালি জাতির অ্যাওয়ার্ড এটা। আমি শুধু এটা ভারত থেকে বহন করে নিয়ে এসেছি মাত্র। বাঙালি জাতি এটার জন্য গর্বিত।’ 

উল্লেখ্য, ক্রীড়া সংগঠক তরফদার রুহুল আমিন ক্রীড়াঙ্গনে বিশেষ অবদানের জন্য গত ২৬ আগস্ট তিনি এই পদক কলকাতায় গ্রহণ করেন।


মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ডটি তিনি শেখ কামালকে উৎসর্গ কওে তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘আমি যে সম্মাননা পেয়েছি মাদার তেরেসা আন্তর্জাতিক পুরস্কার এটা আধুনিক ক্রীড়াঙ্গনের রূপকার ক্রীড়া সংগঠক ক্যাপ্টেন শহীদ শেখ কামালকে এই পুরস্কার উৎসর্গ করছি। যেদিন আমি এই পুরস্কার পেয়েছি সেদিনই আমার মনের মধ্যে এটা ছিল যে পুরস্কারটি ক্যাপ্টেন শেখ কামালকে উৎসর্গ করব।’

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজক ফেডারেশন ফোরামের সভাপতি আসাদুজ্জামান কোহিনূর বলেন, ‘মাদার তেরেসা একটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার। এটার গুরুত্ব অনেক। আজকের অনুষ্ঠান একটি ঐতিহাসিক অনুষ্ঠান হয়ে থাকবে।’ বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন। তিনি ফেডারেশন ফোরামকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘ক্রীড়াঙ্গনের উন্নতির জন্য তরফদার রুহুল আমিন নীরবে কাজ করে যাচ্ছেন। বিভিন্ন ফেডারেশনের জন্য কাজ করছেন। ওনি বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) একজন কাউন্সিলর। এটা যেমন ক্রীড়াঙ্গনের জন্য; তেমনি আমাদের বিওএ’র জন্যও গর্বের। সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা ও ব্যবস্থাপনায় ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সিরাজউদ্দিন মোঃ আলমগীর। 

ইত্তেফাক/এমএএম