বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

স্বেচ্ছাসেবক লীগ সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৫৬

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে দুইজন দুর্বৃত্ত রামদা দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করে রেখে যায়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে ইমরানকে দ্রুত কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা জানান, ইমরান পৌরসভার গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে।

নিহত ইমরানের বাবা আব্দুল জলিল বলেন, ‘৪ মাস আগে গ্রামের কয়েকজন ছেলের সঙ্গে ইমরানের দ্বন্দ্ব দেখা দিলে থানায় বসে তা সমঝোতা হয়। আজ একা পেয়ে তারাই কুপিয়ে ইমরানকে হত্যা করেছে।’

প্রত্যক্ষদর্শী আহাদ আলী জানান, তিনি ও ইমরান সকাল ১০টার দিকে গোবিন্দপুর মাঠপাড়ার খালে মাছ ধরতে গেলে পূর্বে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়া মাসুদ ও সাকিব নামের দু’যুবক রাম দা দিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। সঙ্গে থাকা আহাদ আলী দৌড়ে পালিয়ে গেলেও ইমরানকে কুপিয়ে জখম করে তারা।

প্রত্যক্ষদর্শী আহাদ আরও জানান, হামলাকারী দুজন পৌরসভার নওদা বন্ডবিল গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে সাকিব ও দুর্লভপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে মাসুদ।

আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাবেক কাউন্সিলর শরিফুল ইসলাম রিফাত বলেন, ‌‘আলমডাঙ্গা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন অত্যন্ত নম্র, ভদ্র ও জনপ্রিয় নেতা ছিলেন। তার হত্যাকারীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।’

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম হত্যার ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, ‘দুর্বৃত্তদের ধরতে ইতোমধ্যেই পুলিশের কয়েকটি টিম কাজ করছে। অল্প সময়েই তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।’

ইত্তেফাক/এইচএম