রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ম্যাচ শেষে অনুভূতি জানালেন জোড়া গোল করা কৃষ্ণা রানী

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৩৩

নারী সাফ উইমেনস চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের শিরোপার স্বাদ পেলো বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। ফাইনালে বাংলাদেশের পক্ষে একাই দুই গোল করেন ফরোয়ার্ড কৃষ্ণা রানী সরকার। 

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) নেপালের দশরথ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর ১৩ তম মিনিটেই স্বাগতিক দর্শকদের স্তব্ধ করে বাংলাদেশকে লিড এনে দেন বদলি নামা ফরোয়ার্ড শামসুরন্নাহার জুনিয়র। বিরতিতে যাওয়ার আগে ৪১ মিনিটে বাংলাদেশের পক্ষে দ্বিতীয় গোলটি করেন কৃষ্ণা রানী। গোলরক্ষককে একা পেয়ে দুর্দান্ত শটে বল জালে জড়িয়ে আরও একবার স্বাগতিক দর্শকদের হতাশ করেন কৃষ্ণা। ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ। 

বিরতি থেকে ফিরে ৬৯ মিনিট পর্যন্ত লিড অক্ষুণ্ণ রাখে বাংলাদেশ। কিন্তু ম্যাচের ৭০ মিনিটে একটি গোল শোধ করে নেপাল। এতে কিছুটা চিন্তার ভাজ পড়ে বাংলাদেশ শিবিরে। কিন্তু ম্যাচের ৭৭ মিনিটে আরও একটি গোল করে সকল চিন্তা দূর করে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করেন কৃষ্ণা রানী। 

জোড়া গোল করে বাংলাদেশকে জিতিয়ে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে নিজের অনুভূতি জানিয়েছেন এই ফরোয়ার্ড। তিনি বলেন, ‘আমার অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না, আমি খুব খুশি। ফাইনালে দুই গোল করতে পেরেছি, আমরাই চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। এর চেয়ে আনন্দের আর কী হতে পারে!’

তিনি আরও বলেন, ‘সবচেয়ে বড় আনন্দ চ্যাম্পিয়ন হওয়া। তবে ওরা যখন এক গোল দিলো, তখন তো একটু চিন্তা ছিলই। আরেকটি গোল দিতে পারলে তো সমান হয়ে যেতো। ঠিক তখনই আমি গোল করলাম। তাই আমি এতটাই খুশি যে, বলে বোঝাতে পারবো না।

এর আগে কৃষ্ণা রানী ২০১৮ সালের সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জেতা দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন।

ইত্তেফাক/জেডএইচ/ইআ