সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বেবিটিউবারদের ‘চায়ের বৈঠকে নিরাপদ প্রযুক্তি’

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২২, ১৯:২০

শিশু ও অভিভাবকদের নিয়ে ‘চায়ের বৈঠকে নিরাপদ প্রযুক্তি’  শীর্ষক ব্যতিক্রমী আয়োজন করেছে বেবিটিউব। ৮ অক্টোবর   রাজধানীর শ্যামলী পার্কে সেরা বেবিটিউবারদের পুরস্কার  প্রদানের মাধ্যমে আয়োজনটি সম্পন্ন হয়।

সেরা বেবিটিউবার রাদিয়া ইসলাম হৃদির মা বলেন, ‘এমন আয়োজন সত্যিই অনেক প্রয়োজন। তবেই আমাদের শিশুরা প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে জানতে পারবে। আমার মেয়ে হৃদি নতুন কী ভিডিও বানাবে তা নিয়ে সারাদিন চিন্তা করে। এমনকি সে বেড়াতে গিয়ে সাঁতার কাটতে কাটতে ভিডিওর ইন্ট্রো দিচ্ছে। আমি মনে করি, শিশুদের সৃজনশীল হয়ে ওঠার জন্য পরিবেশ গুরুত্বপূর্ণ। বেবিটিউব সে সুযোগটা দিচ্ছে।’

সেরা বেবিটিউবার মো. জাফির হাসানের মা বলেন, ‘পড়ালেখার পাশাপাশি ভিন্ন চিন্তা-ভাবনা প্রয়োজন। শুধু পড়লেই হবে না। তারা যদি নিজেদের কাজে লাগায়, তাহলে তারা নতুনভাবে নিজেকে আবিষ্কার করতে পারবে। সিইও শামীম আশরাফ বলেন, ‘প্রযুক্তি চরম উত্কর্ষের সময় চলছে। এখন খুব বেশি প্রয়োজন প্রযুক্তির নিরাপত্তা। সবার আগে প্রয়োজন শিশুর নিরাপদ প্রযুক্তি। কেননা তারাই বাংলাদেশ। শিশুরা সুন্দর চিন্তার মাধ্যমে বেড়ে ওঠতে  পারলেই আমার সুন্দর সমাজ গড়তে পারব।’

জাফির হাসানের মা বলেন, ‘আমাদের শৈশবে আমরা খুব একটা সাপোর্ট পেতাম না। আমাদের পরিবার মনে করত, পড়ালেখার বাইরে যাই করা হয় না কেন সেটা সময় নষ্ট। তবে সময় বদলেছে, এখনকার অভিভাবকরা অনেক সচেতন। ফলে শিশু সৃজনশীলভাবে বেড়ে ওঠছে। আশা করি সবার সহযোগিতা শিশুদের জন্য নিরাপদ প্রযুক্তি ভিত্তিক একটা বিশ্ব গড়তে পারব।’

সেরা বেবিটিউবার হয়েছেন মুশফিকুর রহমান, রাদিয়া ইসলাম হৃদি, মো. জাফির হাসান, আদিবা সুলতানা আলিফা, শাহরিয়ার নাবিল, মোবাসসের শাহরিয়ার ও সাদমান কবির। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বেবিটিউবের সিওও রবিউল ইসলাম, পিআর ম্যানেজার বেলাল হোসেন রাজু, এনিমেটর আসিফ মল্লিক ও ইভেন্ট ম্যানেজার আবির মাহমুদ অনিক প্রমুখ।

ইত্তেফাক/এসটিএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন