বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভোটের আগের রাতে সংঘর্ষ, ছাত্রলীগ নেতার ভাই গুলিবিদ্ধ

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪৪

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনের আগের রাতে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী, কর্মী ও সমর্থকদের সংঘর্ষে এক ছাত্রলীগ নেতার ভাই গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন বলে জানা যায়।

মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) রাত ১০টার দিকে এ সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। 

গুলিবিদ্ধ আবদুল আওয়াল খান (২৩) খোকসা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিমুল খানের ছোট ভাই।

আহতরা হলেন- একই উপজেলার শোমসপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে সোহেল শেখ (৪০) ও জাফর শেখের ছেলে মজনু শেখ (৪০)।

পুলিশ জানায়, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দীন খান খোকসা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এতে চেয়ারম্যান পদে বুধবার (২ নভেম্বর) উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু নির্বাচনের আগের রাতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বাবুল আকতার ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোতাহার হোসেন খোকনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এসময় দুপক্ষের মধ্যে গোলাগুলি হলে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির ছোট ভাই আবদুল আওয়াল খান গুলিবিদ্ধ হন। এছাড়া সংঘর্ষে আরও দুজন আহত হন। তাদেরকে রাতেই কুষ্টিয়া ২৫০ শষ্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, বিবদমান দুপক্ষের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এলাকায় ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে বলে তিনি জানান।

এছাড়া গত ৩১ অক্টোবর ওই দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে হলে খোকসা উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তার গাড়ি ভাঙচুর করে। এঘটনায় অজ্ঞাত ১৫০ জনের নামে থানায় মামলা করা হয়।

ইত্তেফাক/আরএজে