শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাকিস্তানকে ১৫৩ রানের টার্গেট কিউইদের

আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫:৫৬

চলমান টি-২০ বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে পাকিস্তানকে ১৫৩ রানের টার্গেট দিয়েছে নিউজিল্যান্ড। বুধবার (৯ নভেম্বর) সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে ব্যাট করতে নামে নিউজিল্যান্ড। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে কিউইরা।

ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ইনিংসের প্রথম বলেই শাহিন আফ্রিদিকে চার মারেন ফিন অ্যালান। এরপরের বলে এলবিডব্লিউয়ের  আবেদিনে সাড়া দেন আম্পায়ার। তবে রিভিউ নিয়ে বেচে যান অ্যালান। তবে ওভারের তৃতীয় বলে ফের এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়ে আউট হন ফিন অ্যালান।  ৩ বলে ৪ রান করে আউট হন তিনি। অ্যালানের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন উইলিয়ামসন। প্রথম ওভারে ৬ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বোলিংয়ে আসেন নাসিম শাহ। ওভারের চতুর্থ ও শেষ বলে চার মারেন ডেভন কনওয়ে। এরপর তৃতীয় ওভারে আবারো বোলিংয়ে আসেন শাহিন আফ্রিদি। ওভারের প্রথম বলে ৩ রান নেন উইলিয়ামসন। এরপর চতুর্থ ও পঞ্চম বলে সিঙ্গেল নিয়ে শেষ বলে ডট দিয়ে ওভার শেষ করে আফ্রিদি। ৩ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ১৯ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। 

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বোলিংয়ে আসেন হারিস রউফ। ওভারের প্রথম বলে স্ট্রেইটে ঠেলে ২ রান নেন উইলিয়ামসন। এরপর দুইটা সিঙ্গেল নেন কেন উইলিয়ামসন ও ডেভন কনওয়ে। ওভারের শেষ দুই বল ডট দিয়ে ওভার শেষ করেন হারিস রউফ। এরপর পঞ্চম ওভারে বোলিংয়ে আসেন মোহাম্মদ ওয়াসিম। এই ওভারে ৭ রান দেন তিনি। 

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে ফের বোলিংয়ে আসেন হারিস রউফ। ওভারের প্রথম বলেই চার মারেন ডেভন কনওয়ে। এরপর সিঙ্গেল নিয়ে উইলিয়ামসকে স্ট্রাইক দেন তিনি। ওভারের তৃতীয় বলে সিঙ্গেল নেন উইলিয়ামসন। ওভারের চতুর্থ বলে দুই রান নেন কনওয়ে। পরের বল ডট দেন রউফ। ওভারের শেষ বলে রান নিতে গিয়ে ডাইরেক্ট থ্রোতে স্ট্যাম্প ভেঙে কনওয়েকে রান আউট করেন শাদাব খান।

পাওয়ার প্লের পর ইনিংসের সপ্তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন স্পিনার শাদাব খান। ওভারের তৃতীয় বলে চার মারেন ক্রিজে আসা গ্লেন ফিলিপস। এই ওভারে ছয় রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। এরপর অষ্টম ওভারে বোলিংয়ে আসেন মোহাম্মদ নেওয়াজ। ওভারের প্রথম পাঁচ বল থেকে ৩ সিঙ্গেল ও এক ডাবলে পাঁচ রান নেন উইলিয়ামসন ও ফিলিপস। তবে ওভারের শেষ বলে নেওয়াজের বলে নেওয়াজকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান গ্লেন ফিলিপস। ৮ বলে ৬ রান করে আউট হন তিনি। 


দলীয় ৪৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় কিউইরা। নবম ওভারে বোলিংয়ে এসে মাত্র ৩ রান দেন শাদাব খান। দশম ওভারে আবারো বোলিংয়ে আসেন মোহাম্মদ নেওয়াজ। এই ওভারে ৭ রান দেন তিনি। ১০ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৫৯ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। 

ইনিংসের ১১ তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন শাদাব খান। ওভারের দ্বিতীয় বলে চার মারেন ড্যারিল মিচেল। পরের দুই বলে দুটি ডাবল নেওয়ার পর চতুর্থ বলে ফের চার মারেন মিচেল। শেষ বলে ১ রান নিয়ে ওভার শেষ করেন তিনি। এরপর ১২ তম ওভারে বোলিংয়ে এসে ৮ রান দেন নাসিম শাহ। ইনিংসের ১৩ তম ওভারের প্রথম বলে মোহাম্মদ ওয়াসিমকে ছক্কা হাঁকান কেন উইলিয়ামসন। ওভারের দ্বিতীয় বলে রিভিউ নিয়ে ব্যর্থ হয় পাকিস্তান। এই ওভার থেকে ৮ রান দেন ওয়াসিম।

ইনিংসের ১৪ তম ওভারের নিজের শেষ ওভার করতে আসেন শাদাব খান। ওভারের প্রথম চার বলে চার সিঙ্গেল নেওয়ার পর পঞ্চম বলে ছয় মারেন ড্যারিল মিচেল। শেষ বলে ডট দিয়ে ওভার শেষ করেন শাদাব খান। এরপর ১৫ তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন আবারো বোলিংয়ে আসেন শাহিন আফ্রিদি। ওভারের প্রথম দুই বল দত দিয়ে তৃতীয় বলে চার মারেন উইলিয়ামসন। পরের তিন বলে তিন সিঙ্গেল নিয়ে ওভার শেষ করে দুই কিউই ব্যাটার কেন উইলিয়ামসন ও ড্যারিল মিচেল। ১৫ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ১০৬ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

১৬ তম ওভারে স্কোরবোর্ডে আরও ৯ রান যোগ করেন দুই কিউই ব্যাটার। ইনিংসের ১৭ তম ওভারের নিজের চতুর্থ ও শেষ ওভার করতে আসেন শাহিন আফিদি। ওভারের দ্বিতীয় বলে কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান আফ্রিদি। দলীয় ১১৭ রানে ৪২ বলে ৪৬ রান করে আউট হন তিনি। উইলিয়ামসনের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন জিমি নিশাম। ওভারের শেষ তিন বলে দুই করে রান নিয়ে ৬ রান নেন নিশাম।

১৮ তম ওভারের প্রথম বলেই নসিমকে চার মারেন ড্যারিল মিচেল। এই ওভারে ১০ দেন আফ্রিদি। ১৯ তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন হারিস রউফ। ওভারের চতুর্থ বলে চার মারেন জিমি নিশাম। পরের বলে সিঙ্গেল নিয়ে মিচেলকে স্ট্রাইক দেন নিশাম। শেষ বলে ২ রান নিয়ে ৩২ বলে নিজের অর্ধশতক পূরণ করেন ড্যারিল মিচেল। 

ইনিংসের শেষ ওভারে বোলিংয়ে আসেন নাসিম শাহ। ওভারের প্রথম বলে ২ রান নেন নিশাম। পরের বলে লেগ বাইয়ে ১ রান পায় নিউজিল্যান্ড। পরের বলে সিঙ্গেল নেন মিচেল। চতুর্থ বলে ফের লেগ বাইয়ে ১ রান পায় কিউইরা। পঞ্চম বলে ২ রান নেন মিচেল। ইনিংসের শেষ বল মিস করলে দৌড়ে ১ রান নিয়ে ওভার শেষ করেন মিচেল। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। দ্যারি মিচেল ৩৫ বলে ৫৩ ও জিমি নিশাম ১২ বলে ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন। 

ইত্তেফাক/জেডএইচ