সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

স্বেচ্ছাসেবী রাফি

আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০২২, ২২:২১

রাফি মাহমুদ পড়াশোনা করেছেন মাদ্রাসায়। তবে সেই গন্ডিতে নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখেননি। কাজ করেছেন স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে। করোনা পরবর্তী সময়ে 'অক্সিজেন সাপোর্ট টিম' শুরু করেন। ২০২১ সালে ৮ টি অক্সিজেন সিলিন্ডারের মাধ্যমে প্রায় ২৬০ জনকে সেবা দান করেন।

চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দাওয়াহ ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী রাফি মাহমুদ ২০২১ সালে শুরু করেন 'দারুল হিকমাহ এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার।' যার মূল উদ্দেশ্য ইসলামের সঠিক ইতিহাস গবেষণার মাধ্যমে আগামী প্রজন্মের সামনে পেশ করা। এছাড়া ইসলামি শিক্ষার পাশাপাশি জেনারেল লাইনের শিক্ষার্থীদের সংযোগ ঘটানো। এই বিষয়ে রাফি মাহমুদ বলেন, 'বর্তমান সময়ে ইসলামকে মানুষ বাঁকা চোখে দেখে। আমরা চাই, সেটি ঘোচাতে। এতে দুই দিকের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা সঠিকভাবে দ্বীনকে জানবে, দ্বীনী শিক্ষার্থীরা সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিত হবে।'

দারুল হিকমাহ এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের মূল ওয়েবসাইট হ্যাকারদের কবলে পড়ার পর নতুন করে শুরু করা হয়। সাথে যুক্ত করা হয় দারুল হিকমাহ একাডেমি। যে একাডেমিতে নজর দেওয়া হচ্ছে মেধার সঠিক চর্চায়। হিকমাহ অর্থ জ্ঞান। জ্ঞান-বিজ্ঞানের বিপ্লব ঘটিয়ে আগামী প্রজন্মকে আত্ম অবলম্বনে উৎসাহ দিতে কাজ করছে একাডেমি।

রাফি মাহমুদ তার বহুমুখী কাজের জন্য মানুষের কাছে পরিচিত। নিজে যুক্ত আছেন লেখালেখির সঙ্গে। খন্ডকালীন শিক্ষকতা করছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে। তবে সব ছাপিয়ে নিজেকে তিনি পরিচয় দেন স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে। স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে উজাড় করে দিতে চান নিজেকে। তার কাছে কোনো সাহায্য নিরাশ হয় না মানুষ। রাফির মতে, যারা স্বেচ্ছাসেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পারে, সকল কাজ তাদের জন্য সহজ হয়ে যায়। দেশ ও দশের সেবায় সর্বদাই তিনি প্রস্তুত।

ইত্তেফাক/এসটিএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন