বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কোস্টারিকার বিপক্ষে স্পেনের গোল উৎসব

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২২, ০০:৫১

মরুর বুকে কাতার বিশ্বকাপে স্পেন পা রেখেছিলো তারুণ্যের জয়গান গেয়ে। ২০১০ বিশ্বকাপ জেতার পর গত দুই বিশ্বকাপের হতাশা কাটাতে একরাশ তরুণের ওপরই ভরসা রেখেছিলেন স্পেন কোচ লুইস এনরিকে। কোচের ভরসার দাম যথার্থই দিয়েছে গাভি-পেদ্রিরা। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কোস্টারিকাকে ৭-০ গোলে হারিয়েছে স্পেন।

গ্রুপ-ই'তে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় কোস্টারিকার বিপক্ষে মাঠে নামে স্পেন। আল থুমামা স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই কোস্টারিকার ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে লুইস এনরিকের দল। 

খেলার শুরু থেকে অধিকাংশ সময় বল নিজেদের পায়ে রেখেই আক্রমণে উঠতে থাকে স্প্যানিয়ার্ডরা। টিকি-টাকা ফুটবলের পাসের পসরা বসিয়ে স্পেন নিজেদের প্রথম গোল তুলে নেয় ম্যাচের ১১ মিনিটেই। ডি বক্সের বাইরে থেকে গাভির বাড়ানো বল ডি বক্সের ভেতর দারুণ দক্ষতায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে কোস্টারিকান গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকে ফাকি দিয়ে জালে বল জড়ান দানি অলমো। 

ঠিক ১০ মিনিট বাদেই দ্বিতীয় গোল পেয়ে যায় স্পেন। লেফট ব্যাক জর্ডি আলবার বাড়ানো বলে কস্টারিকার জালে দ্বিতীয়বার বল জড়ান মার্কো অ্যাসেন্সিও। ম্যাচের ৩১ মিনিতে স্পেনকে তৃতীয়বার উল্লাসে মাতান ফেরান টোরেস। পেনাল্টি থেকে নাভাসকে বোকা বানিয়ে স্পেনকে ৩-০ গোলে এগিয়ে নেন টোরেস। 

প্রথমার্ধের বাকিটা সময়ও নিজেদের পায়ে বল রেখেই গোল আদায়ের চেষ্টা করে গেছে স্পেন। তবে আর কোনো গোল না হওয়ায় ৩-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় স্পেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই যেন আরো গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে স্পেন। পাস, পাস ও পাস এই নীতিতে খেলে কোস্টারিকার মানসিকতাকেই ভেঙে দেয় তারা। ম্যাচের ৫৪ মিনিতে আবারো দলের হয়ে গোল করেন ফেরান তোরেন। জাতীয় দলের হয়ে এটি তার ১৫তম গোল। ৪ গোল দিয়েও যেন গোলের ক্ষুধা মেটে না স্পেনের। মোরাতার মত স্ট্রাইকারকে বদলি হিসেবে নামায় তারা। তারই দেয়া পাস থেকে ৭৪ মিনিটে গোল করে দলকে ৫ গোলের লিড এনে দেন মিডফিল্ডার গাভি। এই গোলের সুবাধে এক ইতিহাস গড়েন এই বার্সা ফুটবলার। স্পেনের সবচেয়ে কমবয়সী ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপে গোল করলেন তিনি। ম্যাচের একদম অন্তিম মুহূর্তে ৮৯ মিনিটে স্পেনের হয়ে ষষ্ঠ গোল করেন পিএসজির ফুটবলার কার্লস সোলার। ম্যাচের ৯২ মিনিটে সর্বশেষ গোলটি করে স্পেন। এবার দাই ওলমোর পাস থেকে বদলি হিসেবে নামা মোরাতা গোল করে দলকে ৭-০ গোলের বিশাল জয় এনে দেন।

বিশ্বকাপে ইতিহাসে এই প্রথম কোনো ম্যাচে ৭ গোল করলো স্পেন। এই বিশাল জয়ে গ্রুপের শীর্ষে উঠে আসলো লুইস এনরিকের দল।

ইত্তেফাক/ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন