মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভেঙে পড়লে চলবে না: মেসি

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৪:০৯

সৌদি আরবের বিপক্ষে অপ্রত্যাশিত হার কেউ মেনে নিতে পারছেন না, কেউ বলতে আর্জেন্টাইনরা। আর যারা আর্জেন্টিনার ভক্ত, তাদের কথা বলা হচ্ছে। ৩৬ ম্যাচ না হারার গৌরব ৯০ মিনিটেই মাটিতে নামিয়ে দিয়েছে সৌদি আরব। পরশু আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে দিল সৌদি আরব, ২-১ গোলে। সেই হারের আলোচনা ফুটবল দুনিয়ায় দাবানলের মতো ছড়াচ্ছে। দলকে একতাবদ্ধ হওয়ার আহ্বান অধিনায়ক মেসির।

কোচ স্কালোনিও মহাবিপাকে পড়েছেন। তাকে নিয়ে আর্জেন্টিনায় ক্ষোভ চলছে বলে আর্জেন্টিনার সংবাদ মাধ্যমেও খবর এসেছে। মারাদোনার ছেলে মারাদোনা জুনিয়র প্রকাশ্যেই মন্তব্য করেছেন, তার বাবার সঙ্গে মেসির তুলনা চলে না। সৌদি আরবের কাছে হারে আর্জেন্টাইনরা লজ্জা পাচ্ছেন। কী কারণে, কেন মারাদোনার সঙ্গে মেসিকে তুলনা করা হয়। এমন কথায় কান দিচ্ছেন না স্কালোনি। ড্রেসিং রুমে, অনুশীলন মাঠে যেখানেই ফিসফাস থাকুক। সবাইকে কান বন্ধ রাখতে বলেছেন স্কালোনি। গ্রুপ পর্বে এখনো দুই ম্যাচ বাকি। মেক্সিকো এবং পোল্যান্ড প্রতিপক্ষ। স্কালোনি এই ম্যাচকে ফাইনাল ম্যাচ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন।

সাইড লাইন থেকে সবাই এখন হিসাব করছেন। কীভাবে আর্জেন্টিনা গ্রুপ পর্বের বাধা পার হবে। কোন অঙ্কের হিসাব মিললে মেসিরা বিশ্বকাপে টিকে থাকবে। মেসিকে নিয়ে সমালোচনাও হচ্ছে। সৌদি আরবের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন তিনি। সৌদি আরবকে তুলে ধরবেন তিনি। ২৫ মিলিয়ন পাউন্ডের চুক্তি এ বছরই হয়েছে।  

২০৩০ বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজক হতে চায় সৌদি আরব। সৌদি আরব স্বাগতিক হতে পারে—এমন সম্ভাবনা পাকাপোক্ত করার জন্য মেসির ভূমিকা থাকবে। এসব নিয়ে নানা কথার গুঞ্জন উড়ে বেড়াচ্ছে ফুটবল দুনিয়ায়। সবাই জিজ্ঞাসা করছে, মেসি এটা কী খেলল। মেসিকে যেভাবে দেখা যায়, সেই খেলাটা কোথায় গেল। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয়ে সৌদি আরবে এক দিনের রাষ্ট্রীয় ছুটিও উপভোগ করা হয়েছে গতকাল। 

দলের এমন দুঃসময়ে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি অবশ্য সতীর্থদের উজ্জীবিত করে তোলার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। ড্রেসিং রুমে ফিরে হতাশাগ্রস্ত দলকে উজ্জীবিত করার চেষ্টা করছেন।

টিওয়াইসিকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে দলের গোলরক্ষক মার্টিনেজ হারের পর ড্রেসিং রুমে মেসির আচরণ কেমন ছিল—সে বর্ণনা দেন। সৌদির বিপক্ষে ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলন শেষে ড্রেসিং রুমে ঢুকে মেসি দলের সবার উদ্দেশে বলেন, ‘এ হার সবার জন্য কঠিন বেদনার। যারা আমাদের সমর্থন করে তাদের জন্য এবং আমাদের জন্যও। কেউ এমন শুরু প্রত্যাশা করেনি। আমাদের ভক্তরা বিশ্বাস করে, এই দলটা তাদের অসহায় অবস্থায় ফেলে রাখবে না।  আমাদের পরবর্তী দুই ম্যাচের দিকে নজর দিতে হবে। আমরা নিজেদের ওপর নির্ভরশীল। আমরা জানি, আমরা এখন বাধ্য, কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে আগেও পড়েছি এবং পথ খুঁজে পেয়েছি।’ ?

মেসির সেই বার্তার পর গতকাল দোহায় তীব্র গরমের মধ্যেই অনুশীলনে নেমে পড়ে আর্জেন্টিনা। সৌদি আরবের বিপক্ষে যে ভুল হয়েছে, তা এড়াতে কোনো আলস্য দেখাচ্ছেন না ফুটবলাররা। রবিবার মেক্সিকোর বিপক্ষে একাদশে কমপক্ষে দুটি পরিবর্তন আনতে যাচ্ছেন কোচ স্কালোনি। মিডফিল্ডে পাপু গোমেজের জায়গায় এনজো ফার্নান্দেজ এবং লেফট ব্যাকে নিকোলাস তাগলিয়াফিকোর জায়গায় মার্কোস আকুইনার খেলা প্রায় নিশ্চিত।

ইত্তেফাক/ইআ