শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

হিজাবহীন নারীকে পরিষেবা, ইরানে ব্যাংক ম্যানেজারকে ছাঁটাই 

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২২, ২১:১৮

হিজাববিহীন এক নারীকে ব্যাংকিং পরিষেবা দেওয়ার ‘অপরাধে’ ইরানের এক ব্যাংক ম্যানেজারকে চাকরি থেকে ছাঁটাই করা হয়েছে। আজ রোববার দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এই তথ্য জানিয়েছে। খবর এনডিটিভির। 

৮০ মিলিয়নেরও বেশি জনসংখ্যার দেশটিতে নারীদের তাদের মাথা, ঘাড় এবং চুল ঢেকে রাখা বাধ্যতামূলক। দেশটির নৈতিক পুলিশ এই আইন প্রয়োগ করেছে এবং এর দেখভাল করছে। 

ইরানের মেহর নিউজ় এজেন্সির প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাজধানী তেহরানের অদূরে কোওম প্রদেশের একটি ব্যাংকে বৃহস্পতিবার হিজাব ছাড়াই ঢুকেছিলেন ওই গ্রাহক। তাকে পরিষেবা দেন ওই ব্যাংকের ম্যানেজার। এরপরেই গভর্নরের নির্দেশ মোতাবেক ওই ব্যাংক ম্যানেজারকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। 

কোওম প্রদেশের গর্ভনর আহমেদ হাজিজাদের নির্দেশেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে তাকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে ওই সংবাদ সংস্থা। প্রশাসনের দাবি, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ওই হিজাবহীন নারীর ছবি ঘিরে বিরূপ প্রতিক্রিয়া হয়েছে।

ইরানের বেশিরভাগ ব্যাংকই রাষ্ট্রীয় নিয়ন্ত্রণাধীন। হাজিজাদে বলেন, এমন প্রতিষ্ঠানে হিজাব আইন বাস্তবায়ন করা ম্যানেজারের দায়িত্ব।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর ঠিকমত হিজাব না পরার অভিযোগে দেশটির নৈতিক পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন মাসা আমিনি (২২)। 

মাসার মৃত্যু ঘিরে ইরানজুড়ে চলে তুমুল বিক্ষোভ

এর তিনদিন পর পুলিশি হেফাজতে মারা যায় মাসা। এর জেরে দেশটিতে তুমুল বিক্ষোভ শুরু হয়। টানা দুই মাসের বেশি সময় ধরে চলছে এই বিক্ষোভে। দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর তাণ্ডবে এখন পর্যন্ত তিন শতাধিক বিক্ষোভকারীর নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যেই দেশটিতে এই ঘটনা ঘটল। 

চলতি বছরের জুলাই থেকে ইরানের সমস্ত রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা বাধ্যতামূলক বলে নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। 

 

ইত্তেফাক/এসআর