সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বিশ্বমঞ্চে স্বর্ণজয় করলেন বাংলাদেশি নির্মাতা তৈমুর

আপডেট : ১৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৫:০৫

নিজের মেধা ও প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে জাপানে অনুষ্ঠিত ২৪তম ‘ডিজিকনসিক্স এশিয়া অ্যাওয়ার্ড’ আসরে গোল্ড ক্যাটাগরিতে ফাইনালিস্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশি তরুণ চলচ্চিত্র নির্মাতা নূর ই আলম তৈমুর।

সম্প্রতি জাপানের টোকিওতে অনুষ্ঠিত ২৪তম DigiCon6 Asia Award অনুষ্ঠানে গোল্ড ক্যাটাগরিতে ফাইনালিস্ট হিসেবে নির্বাচিত হন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র নির্মাতা নূর ই আলম তৈমুর। ২০২০ সালে ‘লিম্বো’ নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন তৈমুর। গত আগস্টে এটি ‘ডিজিকনসিক্স বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় গোল্ড অ্যাওয়ার্ড অর্জন করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৯ নভেম্বর জাপানে অনুষ্ঠিত ‘ডিজিকনসিক্স এশিয়া’ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ পান তৈমুর। সেখানে ছবিটি প্রদর্শনের পাশাপাশি নির্মাতাকে সম্মাননা জানানো হয়।

নূর ই আলম তৈমুর

জাপানে এ সম্মানজনক সফরে তৈমুর জাপানি সংস্কৃতির অভিজ্ঞতা নেওয়ার পাশাপাশি এশিয়ার চলচ্চিত্র জগতের নির্মাতাদের সাথে ভবিষ্যতে চলচ্চিত্র নির্মাণের সম্ভাবনা নিয়ে কাজ করেছেন। TBS Television Co. Ltd. এবং জাপানের মিনিস্ট্রি অফ ইন্টারন্যাল অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড কমিউনিকেশনস’র পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত এ প্রতিযোগিতার লক্ষ্য এশিয়ার আগামী চলচ্চিত্র নির্মাতাদের দর্শকদের সামনে নিয়ে আসা। এ বছর হংকংয়ের  একটি চলচ্চিত্র ‘মাই ডিয়ার সন’ DigiCon6 Asia প্রতিযোগিতার গোল্ড অ্যাওয়ার্ড এবং জাপানের চলচ্চিত্র ‘ম্যাগনিফাইড সিটি গ্রান্ড অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে। বাংলাদেশের অ্যানিমেশন ল্যাব ‘স্টুডিও পদ্মা’র সিইও এবং DigiCon6 Bangladesh-এর সংগঠক শুন্সকে মিজুতানি এই সাংস্কৃতিক বন্ধনকে আরও দৃঢ় করার আশা প্রকাশ করেছেন।

পেশায় বাংলাদেশের আইসিটি বিভাগের DIKKHA প্রকল্পের জুনিয়র কনসালটেন্ট নূর ই আলম তৈমুর চলচ্চিত্র নির্মাণকে ধারণ করেন তার হূদয়ে। তিনি বিশ্বাস করেন, সেদিন খুব বেশি দূরে নয়, যেদিন বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের ডাক সগৌরবে পৌঁছে  যাবে সারা বিশ্বে।

ইত্তেফাক/এসটিএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন