বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মহিষের আক্রমণে আওয়ামী লীগ নেতাসহ নিহত ৩

আপডেট : ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ২১:৩০

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে পাগলা মহিষের আক্রমণে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (২২ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে বারপাখিয়া ও তারটিয়া গ্রামে ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন লাউহাটী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসমত আলী খান (৪৫), একই গ্রামের হাজেরা বেগম (৬০) এবং এলাসিন ইউনিয়নের বারপাখিয়া গ্রামের কিতাব আলী (৫২)। 

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, ২২ জানুয়ারি রোববার একটি পাগলা মহিষ বারপাখিয়া ও তারটিয়া গ্রামে আক্রমণ করে কমপক্ষে ১০/১৫ জনকে আহত করে। এরপর মহিষটি চর লাউহাটী গ্রামে এসে কমপক্ষে আরও ১০ জনকে আহত করে। 

এদের মধ্যে হাজেরা বেগম (৬০) মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার বিকালে মারা যান। ঐ দিন লাউহাটী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসমত আলী খানকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় সাভার এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) রাত পৌনে ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। 

এছাড়া আহত কিতাব আলী টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পথে মারা যান। 

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) লাউহাটী খেলার মাঠে হাসমত আলীর জানাজা শেষে সামাজিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য আহসানুল ইসলাম টিটু হাসমত আলী খানের জানাজায় উপস্থিত হয়ে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। 

এদিকে বিক্ষুদ্ধ জনতা পিটিয়ে ও কুপিয়ে রোববার বিকালে পাগলা মহিষটিকে মেরে ফেলে। 

লাউহাটী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন মোহাম্মদ খান বলেন, পাগলা মহিষের আক্রমণে লাউহাটী ইউনিয়নের ২ জন ও এলাসিন ইউনিয়নের ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আরও ১০/১২ জন চিকিৎসাধীন।

দেলদুওয়ার থানার ওসি জানান, নাসির উদ্দীন মৃধা বলেন, পাগলা মহিষের আক্রমণের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হই। এলাকাবাসীকে ঘর থেকে বের না হওয়ার জন্য মাইকে সতর্ক করা হয়। এবং পানি সম্পদ কর্মকর্তাকে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যও বলা হয়েছে।  

ইত্তেফাক/পিও