মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০২৩, ১৩ চৈত্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিলো খাজা মোজাম্মেল হক ফাউন্ডেশন

আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০০:৪৬

সিরাজগঞ্জে ১১০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৬২০ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি ও সম্মাননা সনদ দিয়েছে খাজা মোজাম্মেল হক (র.) ফাউন্ডেশন। বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) সোহাগপুর নতুন পাড়া আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রদান করা হয় বৃত্তি। অষ্টম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের এই বৃত্তি দেওয়া হয়। 

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান খাজা টিপু সুলতান বলেন, ২০০১ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত কার্যক্রম চালিয়ে আসছে ফাউন্ডেশন। কিন্তু আমি খুবই দুঃখিত যে, বিগত তিনটি বছর আমরা বৃত্তি দিতে পারিনি করোনার কারণে। বক্তৃতা আমি পছন্দ করি না, কাজ করতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। আমাদের ফলাফলগুলো খুবই নিষ্ঠার সঙ্গে করা হয় এতে কোনো সন্দেহ নেই। তাই পুরো সিরাজগঞ্জ জেলার মেধাবীরা এখানে উপস্থিত আছে।

তিনি আরও বলেন, শুধু ভালো ফলাফল করলেই হবে না, একজন ভালো মানুষ হতে হবে। মিথ্যা কথা বলা যাবে না। আমরা নিজের প্রয়োজনকে ত্যাগ করে অন্যের বৈধ প্রয়োজনকে যেন প্রাধান্য দেই। নিজের দায়িত্বকে অবহেলা না করি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সহকারী পরিচালক মো. তোফাজ্জল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা শিক্ষা অফিসার কাজি সলিম উল্লাহ ও বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আসলাম হোসেন। সোহাগপুর নতুন পাড়া আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. সাজ্জাদুল হক রেজা ও প্রধান শিক্ষক মো. মেহেদী মাসুদ শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

ফাউন্ডেশনের বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়কারী আরমান খানের উপস্থাপনায় মেধাভিত্তিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান ‘মেধায় মাতি’ পর্বটি উপস্থিত সবাইকে আনন্দ দেয়। এছাড়া সংগীত শিল্পী এসডি রুবেল ও চলচ্চিত্র অভিনেতা ফেরদৌস উপস্থিত হয়ে ছাত্রছাত্রীদের উৎসাহ প্রদান করেন।

ফাউন্ডেশনের বৃহত্তর উত্তর অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়কারী ছায়েদুল ইসলাম ভুঁইয়া রোমেলের সমন্বয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের কোষাধ্যক্ষ সোহেল হোসেন ইবনে বতুতা, কুমিল্লা অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়কারী প্রকৌশলী খুরশীদ আহম্মদ, ময়মনসিংহ অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়কারী মো. শাহজাহান, বৃহত্তর ঢাকা অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়কারী মেজবাউল আলম রিপন, উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মো. শামছুল আলমসহ ফাউন্ডেশনের অন্যান্য উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্যরা।

ইত্তেফাক/এএইচপি