শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

আত্মবিশ্বাসের সূত্র বললেন সাকিব

আপডেট : ১৫ মার্চ ২০২৩, ০৯:০৪

ঘরের মাঠে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে প্রথম বারের মতো সিরিজ জিতেছে টাইগাররা। শুধু সিরিজ জিতেই থেমে থাকেনি ইংলিশদের করেছে হোয়াইটওয়াশও।  ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে আসেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এ সময় সাকিব জানান চার মাস আগে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপ থেকে আত্মবিশ্বাস পেয়েছেন তারা।

গতকাল মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাকিব আল হাসান নিজেদের পরিবর্তনের বিষয়ে বলেন, ‘দেখুন আমি বলব যে পরিবর্তনটা, আমি জানি না আমি বোধহয় গত এশিয়া কাপ থেকেই আমার অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছি। আমরা হয়তো সেখানে ম্যাচ জিতিনি, তবে আমরা সেখানে খুব ভালো ক্রিকেট খেলেছি যদি এশিয়া কাপ থেকে শুরু করেন। আর বিশ্বকাপে আমাদের দুর্ভাগ্য ছিল যে আমরা সেমিফাইনাল খেলতে পারেনি। সেই সুযোগ আমাদের ছিল। কিন্তু আমরা জানতাম আমরা খুব কাছাকাছি আছি। আমাদের মনে হয় পুরোটা দলের বিশ্বকাপ থেকে এই বিশ্বাসটা তৈরি হয়েছে যে আসলে আমরা বড় দলের সঙ্গে জিততে পারি। বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে আমাদের সন্দেহ ছিল কিন্তু বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স আমাদের আত্মবিশ্বাস দিয়েছে যে আমরা বড় দলের সঙ্গে জিততে পারি।’

এ সময় ইংল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করার পরিকল্পনা আগে থেকে ছিল কিনা জানতে চাইলে সাকিব বলেন, ‘নাহ। ওভাবে ছিল না। কিন্তু সিরিজ শুরুর আগে কেউ চিন্তাও করিনি আমাদের ম্যাচ জিততে হবে বা এমন কিছু। আমরা খুব ভালো ক্রিকেট খেলতে চেয়েছি। তিন ম্যাচেই আমরা চেষ্টা করেছি ব্যাটিংয়ে যার যার জায়গা থেকে অবদান রাখা, বোলিংয়ে, ফিল্ডিংটা আমাদের তিনটা ম্যাচেই আমার মনে হয় অসাধারণ ফিল্ডিং করেছে। যেটা আমাদের বিশেষত টি-টোয়েন্টিতে যেখানে ২-৪-১০-১৫-২০ ডিফারেন্স মেক করে, ঐ জায়গাতে অনেক বড় টিক মার্ক দিয়েছি।’

বর্তমানে নিজেদের টি-টোয়েন্টি দল নিয়ে সাকিব বলেছেন, ‘এখানে যারা খেলছে, বিশেষত টি-টোয়েন্টি সিরিজে; প্রতিটি খেলোয়াড় বিপিএলে পারফর্ম করেছে। ঐ পারফরম্যান্সটা...খুব বেশি গ্যাপ যায়নি সেটা প্রভাব রেখেছে। এখানে যারা পাঁচ-ছয় জন ব্যাট করছে, তারা বিপিএলেও টপ রান স্কোরার। যারা সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়া, তারাও এখানে বল করেছে। ঐ আত্মবিশ্বাস আসলে থাকে। আর যেহেতু খুব বেশি গ্যাপ ছিল না। টানা খেলার ভেতরে থাকা আমাদের সাহায্য করেছে। ’

সংবাদ সম্মেলনে দলের সকলের প্রশংসা করে অধিনায়ক বলেন, ‘দেখুন আমি কোনো এক খেলোয়াড়কে নিয়ে বলতে চাই না । অসাধারণ খেলেছে সবাই। যার যার জায়গা থেকে যেইখান থেকে যতটুকু দেওয়ার প্রয়োজন ছিল তারা সবাই দিয়েছে। দুই-একজন হয়তো যতটা আমরা সব সময় ভাবি খেলবে অতটা আসলে একটা দলে সব সময় খেলে না। যারা ভালো করেছে আমি তাদের কাছে চাইব তারা যতদিন সম্ভব ভালো খেলতে থাকুক। আর যারা হয়তো অতো ভালো সহায়তা করতে পারেনি তারা আরেকটু বেশি কনট্রিবিউট করলে আমরা আরও ভালো দল হয়ে উঠবো।’

এর আগে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকেও ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু পরে ঐ সিরিজগুলো নিয়ে অনেক ধরনের নেতিবাচকতা ছড়িয়েছে। এবারেরটা কি এগিয়ে রাখবেন?

সাকিব বলেছেন, ‘আসলে তুলনা করতে চাই না কোনো সিরিজের সঙ্গে কোনো সিরিজ। প্রতিটা ম্যাচ জেতা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। যেভাবে খেলে জিতেছি, বিশেষত টি-টোয়েন্টিতে খুব বেশি সময় করিনি। ওদিক থেকে আমরা সন্তুষ্ট।’

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন