শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

এমবাপ্পের জোড়া গোলে পিএসজির জয়

আপডেট : ২৭ আগস্ট ২০২৩, ১২:৪৬

আগের মৌসুমে ফরাসি লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার পর বিশ্বকাপজয়ী তারকা ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপ্পেকে ঘিরে দলবদল প্রসঙ্গে নাটকীয়তা শুরু করে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। সব ছাপিয়ে শেষ পর্যন্ত আরও এক মৌসুম ক্লাবটিতে থাকার সিদ্ধান্ত নেন এমবাপ্পে।

এরপর আগের ম্যাচে তাকে বিরতির পর বদলি খেলোয়াড় হিসেবে নামান কোচ লুইস এনরিকে। ম্যাচটিও ১-১ সমতায় শেষ হয়। আগের ম্যাচের ভুলের পুনরাবৃত্তি করেননি এই কোচ। ফলে আবারও শুরু হয়েছে এমবাপ্পে ম্যাজিক, তার জোড়া গোলে পিএসজিও বড় জয় পেয়েছে। খবর ইউরো স্পোর্টের।

শনিবার (২৬ আগস্ট) ঘরের মাঠ পার্ক দ্য প্রিন্সেসে লেন্সকে আতিথ্য দিয়েছিল ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। ৩-১ ব্যবধানের জয়ে এমবাপ্পে ছাড়াও গোল পেয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পিএসজিতে যোগ দেওয়া মার্কো অ্যাসেনসিও। চলতি মৌসুমে তিন খেলায় এটি প্যারিসের ক্লাবের প্রথম জয়।

তবে একদমই খারাপ খেলেনি সফরকারী লেন্স। যদিও তারা ঠিক জালের দেখা পাচ্ছিল না। অবশ্য এমবাপ্পেও দুটি সুযোগ নষ্ট করেছেন। প্রথমে গোলমুখের সামনে থেকে বল ফিরিয়ে দেন লাস ডিফেন্ডার কেভিন ডানসো, পরেরটি ঠেকান লেন্স গোলরক্ষক ব্রিস সাম্বা। সে কারণে জালের দেখা পেতে পিএসজিকে প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। ওয়ারেন জায়ের-এমেরির পাস থেকে দারুণ এক শটে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড অ্যাসেন্সিও। ফলে ১-০ লিড নিয়ে এনরিকের দল বিরতিতে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধে নেমে আরও আধিপত্য দেখায় পিএসজি। যার ধারাবাহিকতায় ৫২ মিনিটে লিড দ্বিগুণ করে নেয় তারা। লুকাস হারনান্দেজের সঙ্গে দারুণ ওয়ান-টু খেলে প্রায় ১০ গজ দূর থেকে বুলেট গতির এক শটে ব্যবধান বাড়ান এমবাপ্পে। পিএসজির হয়ে ফরাসি লিগ আঁ-তে এটি এমবাপ্পের ১৫০তম গোল। পরে অবশ্য তার পা থেকে আরও একটি গোল এসেছে। চেনা এমবাপ্পেকে পেয়ে হাসি ফুটেছে পিএসজি চেয়ারম্যান নাসের আল খেলাইফির মুখে। গ্যালারির ভিআইপি বক্স থেকে ক্যামেরাবন্দী হন তিনি।

তখন লেন্সের হার অনেকটা নিশ্চিত ছিল। তবে যোগ করা সময়ের শুরুতেই আবারও এমবাপ্পের আঘাত। যা প্রতিপক্ষের সঙ্গে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে তোলে। শেষ বাঁশি বাজার আগমুহূর্তে গোল পেয়েছে সফরকারীরাও। দলটির জন্য মরগান গুইলাভোগুই একটা সান্ত্বনার গোল এনে দেন। গত মৌসুমের রানার্স-আপ লেন্স এই মৌসুমে এখনো জয়হীন, দুটি হারের সঙ্গে একটি ড্র। তবে পিএসজি আগের দুটি ড্রয়ের পর এবার একটি জয় পেয়েছে।

ইত্তেফাক/এইচএ/জেডএইচ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন