মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

সুন্দরবনে পর্যটকরা দেখলো বাঘের সাঁতার, ভিডিও ভাইরাল

আপডেট : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৭:১২

টানা তিন মাস বন্ধ থাকার পর সুন্দরবনে পর্যটকদের প্রবেশ শুরু হয়েছে। আর সুন্দরবনে প্রবেশ করেই দুটি জাহাজের শতাধিক পর্যটক দেখা পেয়েছেন রয়েল বেঙ্গল টাইগারের। 

শুধু বাঘের দেখাই মেলেনি, সেই বাঘের সাঁতারে নদী পার হওয়াও দেখেছেন তারা। শনিবার (২সেপ্টেম্বর) দুপুরের সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কচিখালি এলাকার নদী সাঁতরে পার হতে দেখেন একটি বাঘকে।

বাঘের সাঁতার কাটার ঘটনা ভিডিও ক্যামেরা ধারণও করেন পর্যটকরা। সেসব ভিডিও নেটদুনিয়ায় ভাইরাল এখন।

সাম্পান ও ক্রাউন নামের বিলাসবহুল জাহাজে থাকা দর্শনার্থীরা শনিবার (০২ সেপ্টেম্বর) ও রোববার (০৩ সেপ্টেম্বর) দুটি বাঘকে সাঁতরে নদী পাড় হতে দেখেন।

এছাড়া রোববার দুপুরে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের স্মরণখোলা রেঞ্জের আলী বান্দা এলাকায় দায়িত্বরত বনরক্ষীরা একটি বাঘকে নদী সাঁতরে যেতে দেখেছেন।

শনিবার দুপুরের পরে কটকা নদীতে একটি বাঘকে নদী সাঁতরে বনে হারিয়ে যেতে দেখেন পর্যটকবাহী জাহাজ ক্রাউনের যাত্রীরা। পরদিন (রোববার) সকালে কচিখালী এলাকায় ও একইভাবে আরও একটি বাঘকে সাঁতরে যেতে দেখেন সাম্পানে থাকা পর্যটকরা।  

পর্যটকবাহী জাহাজ ক্রাউনের যাত্রী শিমুল হাসান বলেন, শনিবার দুপুরের পরে কচিখালী থেকে একটি বাঘকে সাঁতার কেটে নদীর পার হতে দেখি আমরা। তখন জাহাজের সবাই হইহুল্লোড়ে মেতে ওঠে। অনেকেই ভিডিও করার জন্য তাড়াহুড়ো করেন।

সাম্পানের যাত্রী রাসেল আহমেদ বলেন, রোববার সকালের সাম্পান জাহাজটি কটকা থেকে কচিখালীর দিকে যাচ্ছিল। কচিখালী পৌঁছানোর আগ মুহূর্তে একটি বাঘকে নদী সাঁতরে পাড় হতে দেখা যায়। সুন্দরবনের বাঘ দেখে সবাই খুব খুশি হয়েছেন।  

বাঘগুলোর সাঁতরে নদী পারাপারের বিষয়টি রোববার রাতে নিশ্চিত করেন সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) শেখ মাহবুব হাসান।

উল্লেখ্য, এর আগে ৮ আগস্ট সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কচিখালী অভয়ারণ্য কেন্দ্রের অফিসের সামনে দেখা মিলে একটি বাঘের। বিশাল বাঘটি বনরক্ষীদের ব্যারাকের খুব কাছে চলে আসে। এ সময় মোবাইলে বাঘটির ভিডিও ধারণ করেন এক বনরক্ষী।

 

 

ইত্তেফাক/পিও