বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

বান্দরবান জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরে জনবলের সংকট 

মিলছে না কাঙ্ক্ষিত সেবা

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২৩, ০৫:০০

বান্দরবান জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের হাসপাতাল সমূহে জনবল সংকটে কাঙ্ক্ষিত সেবা মিলছে না। দীর্ঘদিন ধরে জেলার সাতটি প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালে ৪২ জনের পদ শূন্য রয়েছে। জেলা ভেটেরিনারি হাসপাতালে ছয় জনের স্থলে রয়েছে মাত্র দুজন। চারটি পদই শূন্য। জেলা কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রে ৯ জনের স্থলে আছেন চার জন। ভেটেরিনারি সার্জন ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ১৪ জনের বিপরীতে কর্মরত আছেন মাত্র তিন জন। জেলায় সাতটি উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালে ৭৭ জন কর্মকর্তা কর্মচারীর পদ থাকলেও কর্মরত আছেন ৪৫ জন।  

দীর্ঘদিন এসসব স্থানে কর্মকর্তা-কর্মচারী না থাকায় কাঙ্ক্ষিত সেবা পাচ্ছেন না সহস্রাধিক খামারি ও শৌখিন পশু-পাখি লালনকারীরা। এছাড়াও পাহাড়ি জনপদের ঘরে ঘরে রয়েছে গবাদিপশু ও হাঁস-মুরগি। শহরের উচ্চবিত্ত মধ্যবিত্ত পরিবারের শৌখিন পশুপাখি লালন পালনের সংখ্যাও দিন দিন বাড়ছে। কিন্তু জনবল সংকটে অচলাবস্থা বিরাজ করছে প্রাণিসম্পদ বিভাগ, জেলা ও উপজেলা ভেটেরিনারি হাসপাতাল সমূহে। 

বান্দরবান জেলার ভেটেরিনারি হাসপাতালের কর্মকর্তা ডা. পলাশ কান্তি চাকমা জানান, এমনিতেই দেশের সমতল ভূমির ৬১টি জেলার তুলনায় তিন পার্বত্য জেলায় সুযোগ সুবিধা কম, তার উপর গত এক বছর ধরে জেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার পদটি শূন্য রয়েছে। ভেটেরিনারি সার্জন ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার ১৪টি পদের বিপরীতে শুধুমাত্র নাইক্ষ্যংছড়ি, রোয়াংছড়ি ও রুমা উপজেলায় তিন জন সার্জন কর্মরত আছেন। জনবল সংকটে ঠিকমতো সেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না।

ইত্তেফাক/এমএএম