বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে মাতৃত্বকালীন ভাতায় স্বজনপ্রীতির অভিযোগ

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২৩, ২১:৪৮

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে মাতৃত্বকালীন ভাতার তালিকা তৈরিতে অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্টরা। 

উপজেলার মহিষার ইউনিয়নের লোকমান ফকিরের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রূপা, আরশিনগর ইউনিয়নের কবিরাজ কান্দী গ্রামের মালা রানীসহ কয়েকজন নারী অভিযোগ করে বলেন, তাদের মতো হতদরিদ্র অনেক অন্তঃসত্ত্বা নারীর নাম তালিকায় নেই। কিন্তু সচ্ছল পরিবারের অনেক নারী তালিকাভুক্ত হয়েছেন। মূলত ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও সদস্যরা তালিকা তৈরিতে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতি করেছেন।

জানা যায়, ছয় মাস আগে উপজেলার চরসেনসাস ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আবুল কাসেম তার শ্যালক আলামিনের স্ত্রী সিফার নামে একটি মাতৃত্বকালীন ভাতার কার্ড করে দেন। কিন্তু তিনি অন্তঃসত্ত্বা নন। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইউপি সচিব আবুল কাসেম বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‌আমার শ্যালকের স্ত্রী হিসেবে কার্ড করে দিয়েছি। কাজটা আমার ভুল হয়েছে।

উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা তাসলিমা আক্তার বলেন, ‌‌তালিকা তৈরিতে ত্রুটি থাকতে পারে। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, এ রকম ঘটনা ঘটে থাকলে তদন্ত করে দেখা হবে। ঘটনার সত্যতা মিললে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইত্তেফাক/পিও