মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

লজ্জা থাকলে বিএনপি আর কখনো হরতাল অবরোধ ডাকবে না: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী

আপডেট : ০৬ নভেম্বর ২০২৩, ২২:০০

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, লজ্জা থাকলে বিএনপি আর কখনো হরতাল বা অবরোধ ডাকবে না। তারা কর্মসূচি দিয়ে নিজেরাই গর্তে ঢুকে গেছে। তবে মাঝে মাঝে চোরাগোপ্তা হামলার মতো করে বাস পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করে। এটা তাদের পুরোনো অভ্যাস। মিথ্যাচারের জনক বিএনপি এবার অভিনব কায়দায় জো বাইডেনের উপদেষ্টা তৈরি করার মতো মার্কিন সরকারের সঙ্গেও জালিয়াতি করেছে।

সোমবার (৬ নভেম্বর) শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুরের কাঁচি কাটাকে সোনার বাংলা এভিনিউ, সখিপুর এ অন্তর্ভুক্তকরণ, বোরকাঠি উচ্চ বিদ্যালয়ে সুধী সমাবেশ ও জোহরা কাদের স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিজয়-৭১ ভবন উদ্বোধন ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি সরকারের পতন করতে গিয়ে নিজেদের পতন ডেকে এনেছে। আন্দোলনের নামে আবারও মানুষ পুড়িয়ে মারার খেলায় মেতে উঠছে। ওরা জানে নির্বাচনে আসলে ওদের নিশ্চিত পরাজয়। কারণ, বাংলাদেশের মানুষ দুর্নীতিবাজ খালেদা জিয়া, তারেক রহমান ও তাদের দল বিএনপিকে আর কখনো রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায় না। এ দেশের মানুষ বিএনপি-জামায়াতের দুঃশাসনের কথা ভুলে নাই।

উপমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে পদ্মা সেতু বানায়, মেট্রোরেল করে, কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ করে। বিএনপি যতই আন্দোলন করুক কাজে আসবে না। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়াই তাদের নির্বাচন করতে হবে। বিএনপির জনপ্রিয়তা থাকলে নির্বাচনে এসে জনপ্রিয়তা যাচাই করুক। আর দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। আর সেই নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পঞ্চমবারের মতো ক্ষমতায় আসবেন।

এসময় উপস্থিত ছিলে ভেদরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির মোল্যা, শরীয়তপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম আহসান হাবীব, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এম এ কাইয়ুম পাইক, থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার, কাঁচি কাটা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান, আওয়ামী লীগ নেতা কাওসার মোল্লা, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ককন হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার হোসেন বিপ্লব প্রমুখ।

এসময় উপমন্ত্রী তার রত্নগর্ভা মায়ের প্রতিষ্ঠিত বেগম আশ্রাফুন্নেছা ফাউন্ডেশনে পক্ষ থেকে দুই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীকে ৫০ জনকে উপবৃত্তি প্রদান করা হয়।

ইত্তেফাক/এমএএম