শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

দেশের মানুষ এখন নির্বাচনমুখী: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী

আপডেট : ২২ নভেম্বর ২০২৩, ২১:৪৪

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, দেশের মানুষ এখন নির্বাচনমুখী। সারা দেশে নির্বাচন ঘিরে বাংলার যে চিরাচরিত আমেজ, উৎসব, সেই আমেজ আবার ফিরে এসেছে। এটা গণমানুষের প্রতীক্ষা আর পছন্দের ভোট উৎসব। এই ভোটে মানুষের স্বাধীন ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটবে এটাই সারা দেশের মানুষ আশা করে। মানুষ আগের চেয়ে অনেক বেশি সচেতন। ভোটের আগে চুলচেরা বিশ্লেষণ কষতে কারও বাকি নেই। সুতরাং বিএনপিসহ নির্বাচনের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া দলগুলোর উচিত এই উৎসবে সামিল হওয়া। তাতে তাদের জনপ্রিয়তাও যাচাই হয়ে যাবে। কারণ, ক্ষমতা পরিবর্তনের একমাত্র মাধ্যম হলো নির্বাচন।

বুধবার (২২ নভেম্বর) দিনব্যাপী শরীয়তপুরের সখিপুরে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বিএনপির উদ্দেশ্যে বলেন, জনগণ এখন সচেতন, তাই বোমা মেরে ভয় দেখিয়ে তাদের সমর্থন আদায় করা যাবে না। তাই আসুন দেশের সংবিধান সমুন্নত রেখে দেশকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুন। কারণ, এদেশে ক্ষমতার পরিবর্তন করতে পারে একমাত্র জনগণ। জনগণ যাকেই ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে, তারাই সরকার গঠন করবে।  

তিনি বলেন, দেশ ও জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় বিএনপিকে জনগণ পরিত্যাগ করেছে। তাই সময় থাকতে বিএনপির উচিত বিদেশ নির্ভরতা ত্যাগ করে জনগণের ওপর আস্থা রেখে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা।

উপমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের জন্য সবাই প্রস্তুত। একে একে অনেক রাজনৈতিক দলই নির্বাচন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হচ্ছে। সুতরাং বিএনপির উচিত জনসমর্থনহীন কর্মসূচি পরিহার করে জনগণের কাছে যাওয়া। বিদেশিদের কাছে ধরনা দিয়ে লাভ নেই। জনগণই সব ক্ষমতার মালিক।

পরে উপমন্ত্রী তার চাচা শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক কার্যকরী সদস্য ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দীন পাইকের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে চরভাগা পাইকবাড়ি জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়ায় অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও কবর জিয়ারত, দোয়া ও মোনাজাত করেন।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন- শরীয়তপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম আহসান হাবীব, ভেদরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির মোল্যা, ইউএনও আবদুল্লাহ আল মামুন, সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকারসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

ইত্তেফাক/এমএএম