শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

নেশার টাকা জোগাতে ২ সন্তান বিক্রি, ভারতীয় দম্পতি আটক

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২৩, ১৭:০৬

নেশার টাকা যোগাড়ের জন্য মাত্র ৭৪ হাজার রুপিতে নিজের দুই সন্তানকে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে ভারতীয় দম্পতির বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ এক দম্পতিসহ মোট তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে। খবর এনডিটিভির।

শুক্রবার শহরের আন্ধেরি নামক জায়গা থেকে এক মাস বয়সী শিশুকন্যাকে উদ্ধারও করেছে পুলিশ। দুই বছরের আরেক ছেলে সন্তানের খোঁজ চলছে।

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে বাবা-মা সাব্বির ও সানিয়া খান এবং শাকিল মাকরানি নামের আরেকজন রয়েছেন। ঊষা রাঠোড নামে একজন অভিযুক্ত এজেন্ট বিক্রি থেকে কমিশন নিয়েছিল। তাকেও আটক করেছে ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের দয়া নায়ক এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আন্ধেরিতে মাদক আসক্ত এক দম্পতি টাকার জন্য নিজের দুটি সন্তানকে বিক্রি করে দিয়েছেন। দম্পতির পরিবার ঘটনাটি জানতে পেরেই থানায় জানায়। পুলিশ অভিযুক্ত দম্পতি ও আরও দু’জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। অভিযুক্ত দম্পতি ছেলেটিকে ৬০ হাজার এবং এক মাস বয়সী মেয়েটিকে ১৪ হাজার রুপিতে বিক্রি করে দিয়েছে।’

সাব্বির খান, তার স্ত্রী সানিয়া, উষা রাঠোর ও শাকিল মাকরানির বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। সাব্বির ও সানিয়া মাদকাসক্ত ছিল বলে জানা গেছে।

ক্রাইম ব্রাঞ্চ আরও বলেছে, ‘তারা নেশা ছাড়া চলতে পারে না। অভিযুক্ত নারী রাঠোডও তাদের সঙ্গে জড়িয়ে যায়। দম্পতি যার কাছে বাচ্চাগুলো বিক্রি করেছিল তার পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। ‍এছাড়াও, এই দম্পতির সম্প্রতি একটি মেয়ে হয়েছে। তারা গত মাসে অভিযুক্ত শাকিল মাকরানির কাছে ১৪ হাজার রুপিতে মেয়েটিকে বিক্রি করেছে।’

অভিযুক্ত সাব্বিরের বোন রুবিনা খান ঘটনাটি জানতে পারলে তিনি হতবাক হয়ে যান। সে তার ভাইয়ের ওপর রেগে যায় ও সঙ্গে সঙ্গে ডিএন নগর থানায় ঘটনাটি জানায়। সে থানায় ভাই ও ভাবির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে।

রুবিনার অভিযোগের ভিত্তিতে ডিএন নগর পুলিশ একটি মামলা দায়ের করে ও পুলিশ তদন্তটি ক্রাইম ব্রাঞ্চের কাছে হস্তান্তর করে।

ইত্তেফাক/এসএটি