বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ইমরানকে সমর্থন দিয়ে সরে দাঁড়ালেন ৭ প্রার্থী, মাঠে নেই কেউ 

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ২০:৫৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-৪ (গোয়াইনঘাট-জৈন্তাপুর-কোম্পানীগঞ্জ) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সরকারের সাবেক প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন এ আসন থেকে ৭ মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের সুযোগ থাকলেও দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানিয়ে এমন সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। এমন কি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেও নির্বাচন করবেন না বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তারা।

জানা যায়, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফারুক আহমদ, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মাহফুজুর রহমান, গোয়াইনঘাট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ, গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. ফজলুল হক, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি গোলাপ মিয়া, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পশ্চিম আলীরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. গোলাম কিবরিয়া হেলাল, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য ও জাতীয় শ্রমিক লীগ সিলেট মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম রোমেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সিলেট জজ কোর্টের সহকারী পিপি অ্যাডভোকেট শাহজাহান চৌধুরী এই ৭ জন নেতা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। কিন্তু দল বেছে নিয়েছে সাবেক প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদকে। 

এর ফলে ওই ৭ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে নির্বাচনী মাঠে লড়াইয়ে না যেতে মনস্থির করলেন। যদিও দল থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী না হতে তেমন কোনো কড়া নির্দেশনা নেই। গত (২৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সারাদেশের সঙ্গে সিলেট -৪ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নে ইমরান আহমদের নাম ঘোষণা করেন। 

জানা যায়, সিলেট -৪ (গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর ও কোম্পানীগঞ্জ) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ ১৯৮৬ সালে সরাসরি আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হন। এরপর ১৯৮৬. ১৯৯১, ১৯৯৬. ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের সংসদ নির্বাচনে সর্বস্থরের বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। তিনি পঞ্চম জাতীয় সংসদে বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। সপ্তম জাতীয় সংসদে সরকারি প্রতিষ্ঠান কমিটির সভাপতি এবং বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কীয় কমটির সদস্য ছিলেন। নবম জাতীয় সংসদে লাইব্রেরি কমিটি এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। দশম জাতীয় সংসদে তিনি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি একাদশ জাতীয় সংসদে প্রথমে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রী এবং ৩ মাস পর পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ইত্তেফাক/পিও