রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

কিংসের মাঠে আবাহনীর সেমিফাইনাল

আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৩:১১

বিজয় দিবসের মাঝেই চলছে স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। মাঝে খেলা বন্ধ ছিল জাতীয় দলের ফিফার ম্যাচ ছিল। সেটার পর এএফসি কাপের খেলা ছিল। সব শেষ করে আজ স্বাধীনতা কাপের সেমিফাইনাল। ঢাকায় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় কিংসের মাঠে বিকাল ৪টায় দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আবাহনী ও কিংস এবং গোপালগঞ্জে দুপুর পৌনে ২টায় শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে প্রথম সেমিফাইনালে মোহামেডান খেলবে রহমতগঞ্জের বিপক্ষে।

সেমিফাইনালের খেলা মাঠে গড়ানোর আগেই ১০ কথা হয়ে গেছে। কিংসের মাঠে খেলতে চায় না আবাহনী। তারা মনে করে এই মাঠে কিংসের বিপক্ষে খেলতে গেলে অদৃশ্য চাপ তৈরি হয়। কথাটা মুখে না প্রকাশ করলেও তাদের কথার আড়ালে যেন এটা ধ্বনিত হয়।

আবাহনীর ম্যানেজার নজরুল ইসলাম, তিনি সাবেক ফুটবলার, জাতীয় দলে খেলেছেন। নজরুলকে জিগ্যেস করা হয়েছিল কিংসের মাঠে খেলতে সমস্যা কি। নজরুল বললেন,‘আপনি-ই বলেন না সুবিধাটা কি।’ এরপরই নজরুল বলেন, ‘আমরা নিরপেক্ষ ভেন্যু চেয়েছিলাম। এটা ওদের (কিংসের) হোম ভেন্যু। হোম এডভান্টেজ নেবে। কারণ সেমিফাইনাল ম্যাচ।’ কিন্তু নিরপেক্ষ ভেন্যুর প্রয়োজনটা কি? নজরুল বললেন, ‘প্রয়োজন মনে করব না কেন বলুন।’ দুদিন আগেও নিশ্চিত ছিল না আবাহনী-বসুন্ধরা কিংস সেমিফাইনালের ভেন্যু পরিবর্তন হবে কিনা। গতকাল বিকালে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে আবাহনীকে কিংসের মাঠে খেলতে আসতেই হবে। সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে আবাহনী। 

প্রিমিয়ার লিগ কমিটি নতুন চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান দেখিয়ে দিলেন আবাহনীকে কীভাবে নিজের ঘরে আনতে হয়। মাঠে নামাতে হয়। অযৌক্তিক আব্দার মানতে রাজি না লিগ কমিটির চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান। কাল জানালেন, ‘কী কারণে ভেন্যু চেঞ্জ করব বলুন? এখানে তো কোনো সমস্যা নেই। অন্যান্য দল আসছে খেলছে। তাছাড়া এই ম্যাচের ভেন্যু নির্ধারণটা হয়েছে টস ভাগ্যে। এটা তো আমার সিদ্ধান্তের কোনো ব্যাপার না। আগেই টসে নির্ধারণ হয়।’ ইমরুল হাসান বলেন, ‘ফেডারেশন কাপ ফুটবলের কতগুলো ম্যাচ গোপালগঞ্জ ভেন্যুতে হবে। এটি আবাহনীর ভেন্যু। এখন বসুন্ধরা কিংস কি বলতে পারবে সেখানে খেলতে যাবে না। এটা হয় না।’

সাংগঠনিকভাবে আবাহনী কেন চিন্তা করেছিল, কিংসের ভেন্যু নিয়ে তাদের অস্বস্তি রয়েছে। যদি থেকেই থাকে তাহলে তার পক্ষে যৌক্তিকতা কী। কোনো গ্রহণযোগ্য ইস্যু না দেখিয়ে কি কারণে ভেন্যু পরিবর্তন করতে চাইল, সেটি ফেডারেশনের কাছে পরিষ্কার করতে পারেনি। আবাহনী ফুটবল কর্তাদের সাংগঠনিক দুর্বলতাই প্রকাশ করল কিনা। যেটি ধোপে টেকেনি। আবাহনী মনে করে কিংসের মাঠে হিডেন চাপ থাকে, যেটা অন্য কোনো ভেন্যুতে হয় না।

এই টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে আবাহনী খেলেছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের বিপক্ষে। সেই ম্যাচে ৯০ মিনিটে ভাগ্য নির্ধারণ হয়নি। ১৩০ মিনিটেও (১-১) হয়নি। টাইব্রেকিংয়ে আবাহনী জয় পায়। খেলায় ঘটেছিল অনেক ঘটনা। আবাহনীর ম্যানেজার নজরুল ইসলাম লালকার্ড পেয়েছিলেন। রেফারির সঙ্গে বাগিবতণ্ডায় এ অপরাধ হয়েছে বলে রেফারির রিপোর্টে নজরুল ৪ ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন। আজকে নজরুল ডাগআউটে থাকতে পারবেন না। আরও তিন ম্যাচ বাইরে থাকবেন।

এএফসি কাপ ফুটবল অভিযান শেষ করা বসুন্ধরা কিংসের খেলোয়াড়দের মন ভালো নেই। ভারতের ভুবনেশ্বরে ওড়িশা এফসির বিপক্ষে ম্যাচটা ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইন্টারসেমিফাইনালে উঠত। সেই ম্যাচে ১-০তে হেরে স্বপ্ন ভেঙে যায় বসুন্ধরা কিংসের। আজ আবাহনীকে হারিয়ে দলের মধ্যে আবার মেজাজ ফিরে পেতে চান স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজন। আর আবাহনীর আর্জেন্টাইন কোচ আন্দ্রেস ক্রুসিয়ানী শেখ জামাল ম্যাচের তিক্ত অভিজ্ঞতা এড়িয়ে আবাহনীকে ফাইনালে তোলার পরিকল্পনাটা বাস্তবায়ন করতে চান।   

ইত্তেফাক/জেডএইচ