বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে মুরগীর খামারে হামলার অভিযোগ 

আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:১৪

পিরোজপুরের নাজিরপুরে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে মুরগীর খামারে হামলার ঘটনা ঘটার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় মো. রবিউল খান নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাতকাছিমা গ্রামের মৃত মান্নান মোল্লার ছেলে মো. রেজাউল করিম মোল্লার মুরগীর খামারে। অভিযুক্ত মো. রবিউল খান একই গ্রামের ছালেক খানের ছেলে। 

জানা যায়, গত ৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় রবিউল ও তার সহযোগী তিন ভাই এবং তার লোকজন নিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে রেজাউল মোল্লার মুগির খামার ও মাছের ঘেরে হামলা করে এসময় রেজাউল মোল্লার স্ত্রী মোসা. ইয়াসমিন বেগম আহত হয়।  

ভুক্তভোগী রেজাউল মোল্লা জানান, ২০১৭ সালে মুরগীর খামার ও ঘেড়ের জায়গা স্থানীয় সোবাহান খানের কাছ থেকে ক্রয় করে দীর্ঘ দিন ধরে মুরগির খামার ও মাছের ঘের তৈরি করে ভোগদখলে আছি। কিন্তু রবিউলদের ও আমার জায়গা পাশাপাশি হওয়ায় বিভিন্ন সময় তারা আমাকেসহ আমার পরিবারকে হুমকি এবং জায়গা দখলের চেষ্টা করে। এ নিয়ে আমি বিজ্ঞ জেলা অতিরিক্ত ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে বাদী হয়ে ১৪৪/১৪৫ ধারায় মামলা দায়ের করি। উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালত উভয় পক্ষকে স্ব-স্ব অবস্থানে শান্তিপূর্ণভাবে থাকার আদেশ দেন যাহার মামলা নম্বর- ৩৫৫/১৮ (নাজির)। কিন্তু রবিউল ও তার সহযোগীরা উক্ত কোর্ট আদেশ অমান্য করে জোড়পূর্বক জায়গা দখলের চেষ্টা করে এ সময় তাদের সঙ্গে থাকা দেশীও অস্ত্র দিয়ে খামারের পাশের ছোট ঘর ভাঙচুর করে ও আমার স্ত্রীকে মারধর করে। এতে তিনি আহত হন, বর্তমানে তিনি নাজিরপুর হাসপাতালে ভর্তি আছে। 
 
এ বিষয়ে রবিউলের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। 

নাজিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. জিয়া উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, ঘটনা ঘটেছে, আমি সরেজমিনে গিয়েছি অভিযোগ পেয়েছি এবং আইনি প্রক্রিয়া চলমান।
 

ইত্তেফাক/পিও