সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

চাল রপ্তানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক থাকছে ভারতে 

আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:০৬

ভারত চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত সেদ্ধ চাল রপ্তানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করলেও এই শুল্ক হার অব্যাহত থাকবে জানা গেছে। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই রপ্তানি শুল্ক হার বহাল থাকবে। খবর দ্য ইকোনোমিক টাইমসের।

ভারত সরকার গত বছরের আগস্টে সেদ্ধ চালের রপ্তানির ওপর ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে। অভ্যন্তরীণ মজুত বাড়ানো ও দাম নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যই দেশটির সরকার ওই সিদ্ধান্ত নেয়, যা ২০২৪ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত কার্যকর করা হয়েছিল। কিন্তু ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপনে জানিয়েছে, রপ্তানির ক্ষেত্রে ২০ শতাংশ শুল্ক হার অনির্দিষ্টকালের জন্য কার্যকর থাকবে।

ভারতের খুচরা মূলস্ফীতি কমে ৫ দশমিক ১০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, যা ডিসেম্বরে ছিল চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ দশমিক ৬৯ শতাংশ। 
ভারতের কৃষিমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ২০২২-২০২৩ শস্য বছরে চালের উৎপাদন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৫ দশমিক ৫৪ মিলিয়ন টনে, যা তার আগের বছরের ১২৯ দশমিক ৪৭ মিলিয়ন টনের চেয়ে বেশি।

চাল রপ্তানিতে শুল্ক আরোপ করা হলেও চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল মোদি সরকার। গত মঙ্গলবার তারা আবার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, সেই সময় এগিয়ে আনার প্রশ্ন নেই, বরং নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আরও বাড়ানো হতে পারে।

এদিকে সামগ্রিকভাবে পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও বাংলাদেশসহ ছয় দেশে সীমিত পরিমাণে পেঁয়াজ রপ্তানি করবে বলে জানিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এসব দেশে সরকারি পর্যায়ে (জিটুজি) পেঁয়াজ রপ্তানি করা হবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুপারিশে দেশটির কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে সংবাদে বলা হয়েছে। তবে কী পরিমাণে পেঁয়াজ রপ্তানি হবে, কিংবা কবে থেকে রপ্তানি হবে, সে ব্যাপারে ভারতীয় গণমাধ্যম কিছু জানাতে পারেনি।

যেসব দেশে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি করবে সেই দেশগুলো হলো বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, মরিশাস, বাহরাইন, ভুটান ও নেপাল।

ইত্তেফাক/এনএন