মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ছুটির দিনের সকালেও ঢাকার বাতাস ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩০

আজ সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি)। সরকারি ছুটির দিন।  শবে বরাতের পরদিন বাংলাদেশে নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি। এ দিন সকালেও ঢাকার বাতাসের মান ‘অস্বাস্থ্যকর’ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

আইকিউএয়ারের বাতাসের মানসূচকে আজ সকাল ৭টা ৫৩ মিনিটে ঢাকার স্কোর ছিল ১৫৬। এই স্কোর ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে বিবেচনা করা হয়।

চলতি মাসে টানা দুই দিন ঢাকার বায়ু ছিল দুর্যোগপূর্ণ। এ ছাড়া বেশির ভাগ দিনই ছিল অস্বাস্থ্যকর।

আজ ১৮৬ স্কোর নিয়ে দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে পাকিস্তানের লাহোর শহর। এ ছাড়া দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতের মুম্বাই শহরের স্কোর ১৭৩, তৃতীয় অবস্থানে থাকা বসনিয়া হার্জেগোভিনার সারাজেভো শহরের স্কোর ১৭২, চতুর্থ অবস্থানে থাকা চীনের হ্যাংজু শহরের স্কোর ১৬৭ এবং সমান স্কোর নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে আছে দেশটির আরেক শহর উহান।

বায়ুদূষণের এই পরিস্থিতি নিয়মিত তুলে ধরে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আইকিউএয়ার। বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা এই লাইভ বা তাৎক্ষণিক একিউআই সূচক একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটা নির্মল বা দূষিত, সেটা সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং সতর্ক করে।

১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান 'সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর', ১৫০ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়।

২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে 'খুব অস্বাস্থ্যকর' বলা হয়, ৩০১+ একিউআই স্কোরকে ‘দুর্যোগপূর্ণ বা বিপজ্জনক’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের ৫টি বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে। সেগুলো হলো- বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজোন (ও৩)।

দীর্ঘদিন ধরে বায়ু দূষণে ভুগছে ঢাকা। এর বাতাসের গুণমান সাধারণত শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায় এবং বর্ষাকালে কিছুটা উন্নত হয়।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ঢাকার বায়ু দূষণের তিনটি প্রধান উৎস হলো- ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।

ইত্তেফাক/কেকে