রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

পেঁয়াজের বীজ চাষ করে লাভবান কৃষক

আপডেট : ১৬ মার্চ ২০২৪, ০৬:৪০

মানিকগঞ্জের হরিরামপুরের মাঠে মাঠে শোভা পাচ্ছে পেঁয়াজ বীজের সাদা ফুল আর এই সাদা ফুলের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে কৃষকের রঙিন স্বপ্ন। পেঁয়াজ বীজ চাষ করে লাভবান হচ্ছেন এলাকার কৃষকরা। 

উপজেলার প্রতিটি গ্রামে চাষ করা হয়েছে পেঁয়াজের বীজ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর পেঁয়াজ বীজের সঙ্গে সম্পৃক্ত কৃষকদের মুখে হাসি ফুটেছে। হরিরামপুর উপজেলার রাজার কলতা গ্রামের কৃষক সুভাষ মজুমদার জানান, গত বছর পেঁয়াজ বীজের দাম ভালো পাওয়ায় এ বছর আগ্রহ নিয়ে বেশি জমিতে পেঁয়াজ বীজের আবাদ করেছি। নিজবাড়িতে সংগ্রহ করা পেঁয়াজ থেকেই এ বছর ২৫ শতাংশ জমিতে পেঁয়াজ বীজ চাষ করেছি।

বিজয়নগর গ্রামের কৃষক মো. মাইনুদ্দিন বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর যাবত্ পেঁয়াজ বীজের আবাদ করে থাকি। এই ফসল চাষ করে লাভবান হয়েছি। এ বছর ১৫ শতাংশ জমিতে পেঁয়াজের বীজ চাষ করেছি। 

বাল্লা ইউনিয়নের বৈকা গ্রামের কৃষক মো. ফারুক হোসেন বলেন, এ বছর ৪৩ শতাংশ জমিতে আমি পেঁয়াজ বীজ চাষ করেছি। ক্ষেত পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছি। বিভিন্ন রোগবালাইয়ের জন্য কীটনাশক স্প্রে করতে হচ্ছে। সবকিছু ঠিক থাকলে দেড় লাখ টাকার ওপরে বীজ বিক্রির আশা করছেন তিনি।

এ বিষয়ে হরিরামপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. তৌহিদুজ্জামান খান বলেন, উপজেলায় চলতি অর্থবছরে ২৫ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ বীজ উত্পাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, এ বছর পেঁয়াজ বীজ উত্পাদনের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, তা ছাড়িয়ে যাবে। এছাড়া আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে কৃষকরা যাতে বাণিজ্যিকভাবে পেঁয়াজের বীজ উত্পাদন করতে পারেন, এজন্য উপজেলা কৃষি অফিস বীজ উত্পাদন, সংরক্ষণ থেকে বাজারজাত করা পর্যন্ত পরামর্শের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এএইচপি