মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

নির্মাণাধীন সাইটে নিরাপত্তা নিশ্চিতে কঠোর নির্দেশনা রাজউকের  

আপডেট : ৩১ মার্চ ২০২৪, ০০:১৪

রাজধানীর মিরপুর এলাকায় নির্মাণাধীন সাইট সংলগ্ন রাস্তা ও ফুটপাত থেকে নির্মাণ সামগ্রী অপসারণসহ পথচারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্মাণাধীন ভবনে সেফটি-নেট ও সেফটি স্কাফোল্ডিং স্থাপনের মাধ্যমে পরিবেশ বান্ধব নগরের জন্য কাজ করছে রাজউক। এই কার্যক্রমে সকাল ১০ টায় শুরু হয়ে বিকালে পর্যন্ত নির্মাণাধীন বিভিন্ন ভবন পরিদর্শন ও দিকনির্দেশনা প্রদান করে। রাস্তা ও ফুটপাত দখলমুক্ত ও পরিচ্ছন্ন রাখা, পরিবেশ ও বায়ু দুষণরোধে এবং নিরাপত্তার জন্য নির্মাণাধীন ভবন গুলোর নির্মাণ সামগ্রী ভবন মালিকরা নিজ উদ্যোগে সরিয়ে নেওয়ার জন্য রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) কঠোর নির্দেশনা প্রদান করে। নির্মাণ শ্রমিকদের পিপিই ও সেফটি ভেস্ট পরিধানের ব্যাপারে ভবন মালিক ও সাইট ইঞ্জিনিয়ারদের পরামর্শ ও নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

ছবি: ইত্তেফাক

শনিবার (৩০ মার্চ) সকাল থেকে রাজউকের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত হয়ে রাস্তা ফুটপাত দখলমুক্ত ও নিরাপত্তা নিশ্চিন্তে  কাজ করছে। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, রাজউক জোন-৩/১,আওতাধীন এলাকায় রাস্তা ও ফুটপাথ থেকে বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী সরানো জন্য রাজউকের কর্মকর্তারা ভবনের মালিকদের নির্দেশনা দিচ্ছেন এবং তাৎক্ষণিক ভাবে তা সরানোর ব্যবস্থা করছে। রাস্তা ও ফুটপাত থেকে নির্মাণ সামগ্রী অপসারণের জন্য প্রয়োজনে পুলিশের সহায়তা ও নেওয়া হচ্ছে।

 

ছবি: ইত্তেফাক

এছাড়া রাজউক আওতাধীন উত্তরা, গুলশান, আফতাব নগর, মিরপুর, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, বসিলা, খিলগাও, বনশ্রী, মাতুয়াইল, ও নারায়ণগঞ্জ এলাকাতেও এ কার্যক্রম চলমান।

রাজউকের জোন-৩ এর পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজিনা সারোয়ার বলেন, এ কার্যক্রমে রাস্তা বাধাহীনভাবে মানুষ ব্যবহার করতে পারে, পরিবেশ ও বাতাস নির্মল থাকে এবং নির্মাণ শ্রমিকসহ পথচারীদের নিরাপত্তা বজায় থাকে এ বিষয়ে ভবন মালিকদের সচেতন করা হচ্ছে। এ কার্যক্রম আগেও ছিল বর্তমানেও চলছে। ভবন মালিকদের সচেতনতা থাকলেই এ বিষয়টি ফলপ্রসূ হবে। তবে কোনো ভবন মালিক এই বিষয়ে নির্দেশনা না মানলে নির্মাণ আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

ছবি: ইত্তেফাক

এই কার্যক্রমে অত্র জোনের অথরাইজড অফিসার শেখ মাহাব্বীর রনির ব্যবস্থাপনায় সহকারী অথরাইজড অফিসার, প্রধান ইমারত পরিদর্শক ও ইমারত পরিদর্শকগণসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারগণ উপস্থিত ছিলেন। 

এমএএম