মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মোহাম্মদপুর এলাকায় রাজউকের অভিযানে ভেঙে দেয়া হলো ভবন

আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:১৬

রাজধানীর মোহাম্মদপুর বছিলা ৪০ ফিট রোডের আশপাশে নির্মাণাধীন অবৈধ ভবনে অভিযান চালিয়েছে রাজউক। সেটি পরিচালনা করেন রাজউকের পরিচালক (অডিট ও বাজেট) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামরুজ্জামান।

সোমবার (১ এপ্রিল) সকাল ১০ টা থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়ে বিকালে শেষ হয়। অভিযানে চলাকালীন বসিলা ৪০ফুট রোড ও কেরানীগঞ্জ রোডের পাশে নকশা বিহীন একটি ভবনের সম্পূর্ণ অংশ অপসারণ করা হয়। এছাড়া বসিলা ৪০ফুট রোড সংলগ্ন কয়েকটি বহুতল ভবনের আংশিক অপসারণসহ মুচলেকা নেওয়া হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, আজকে অভিযানে মোহাম্মদপুর বছিলা ৪০ ফিট এভিনিউ ও এর আশপাশে এলাকায় নকশা বিহীন ভবন নির্মাণ করায় উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। ৭ টি নির্মানাধীন ভবনে অভিযান চালিয়ে বসিলা ৪০ রোড সংলগ্ন জিরো সেটব্যাক রেখে নির্মাণাধীন ১টি ভবনের সম্পূর্ণ অংশ ও ২ টি ভবনের আংশিক ভেঙে দেওয়া হয়। ডিপিডির সহায়তায় ৬টি নির্মাণাধীন ভবনের বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। একই সঙ্গে তারা যেন পরবর্তীতে রাজউকের অনুমোদন ছাড়া ইমারত নির্মাণ না করে সে বিষয়ে মুচলেকা নেয়া হয়।

মোবাইল কোর্ট চলাকালীন বসিলা ৪০ফুট সংলগ্ন ভবন মালিক ইজহারুল হক সেতু এর অশোভন আচরণের কারনে তাকে মোহাম্মদপুর থানায় আটক রাখা হয়। পরবর্তীতে মোহাম্মদপুর থানায় মুচলেকা নিয়ে গোলাম সামদাদি খানের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

মোবাইল কোর্টের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন, জোন-৫ এর পরিচালক, মোঃ হামিদুল হক, অথরাইজড অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন, সহকারী অথরাইজড অফিসার মোঃ মেহেদী হাসান, প্রধান ইমারত পরিদর্শক মোঃ সাব্বির আহমেদ, ইমারত পরিদর্শক আব্দুল সাত্তার, তুহিন রেজাসহ রাজউকের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

ইত্তেফাক/এসসি