বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ইরানি কনস্যুলেটে হামলার উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে: রাইসি

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৩

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানি কনস্যুলেটে সন্দেহভাজন ইসরাইলি বিমান হামলার প্রতিশোধ নেবে ইরান। মঙ্গলবার এই সতর্কবার্তা দেন ইরানি প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। ওই হামলায় সাত ইরানি সামরিক কমান্ডার নিহত হওয়ার একদিন পর এমন হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। এদিকে ইসরাইলের ওই হামলার সঙ্গে ‘তারা জড়িত নয়’, বলে ইরানকে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয় রাইসি বলেছেন, প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সঙ্গে না পেরে নিজেকে বাঁচানোর জন্য ইহুদিবাদী ইসরাইলি শাসক তার এজেন্ডার আওতায় অন্ধ হত্যাকাণ্ড শুরু করেছে। তাদের অবশ্যই জানা উচিত, দেশটি কখনই তার লক্ষ্য অর্জন করতে পারবে না এবং এই কাপুরুষোচিত অপরাধের মোক্ষম জবাব দেওয়া হবে। দীর্ঘদিন ধরে সিরিয়ায় ইরানি সামরিক স্থাপনা এবং দেশটির প্রক্সিদেরকে লক্ষ্যবস্তু করেছে ইসারইল। তবে সোমবারের ওই হামলা প্রথমবারের মতো দূতাবাস প্রাঙ্গণে আঘাত হানে। ইরান-সমর্থিত ফিলিস্তিনি সশস¿ গোষ্ঠী হামাসের সঙ্গে সঙ্গে প্রক্সিদের বিরুদ্ধেও হামলার মাত্রা বাড়িয়েছে ইসরাইল।

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইসরাইলের বিমান হামলায় ইরানি কনস্যুলেট ভবন ধ্বংস হয়েছে। এতে ইরানের একজন শীর্ষ কমান্ডার ও তার ডেপুটিসহ সাতজন নিহত হয়। সোমবার স্থানীয় সময় বিকাল প্রায় ৫টার দিকে হওয়া এ হামলায় ইরানের ইসলামিক রেভোল্যুশনারি গার্ড কোরের (আইআরজিসি) কুদস ফোর্সের জ্যেষ্ঠ কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ রেজা জাহেদি ও তার ডেপুটি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ হাদি হাজরিয়াহিমি নিহত হয়েছেন বলে এক বিবৃতিতে আইআরজিসি জানিয়েছে।  

দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমের প্রতিবেদনের বরাতে জানা যায়, সোমবার রাতে ইরানের অন্যতম সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী পরিষদ সুপ্রিম ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিল বৈঠকে মিলিত হয়ে দামেস্কে ইসরাইলের প্রাণঘাতী হামলার বিষয়ে ‘প্রয়োজনীয়’ জবাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে ইরান ইসরাইল ও তার ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ানোর মতো বিপজ্জনক ঝুঁকি নেবে কিনা তা পরিষ্কার হয়নি। ইরান যদি ইসরাইলের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতের পথ এড়িয়ে যায় তাহলে তেহরান লেবাননের হিজবুল্লাহ ও ইয়েমেনের হুতিদের মতো তাদের ছায়া বাহিনীগুলোর ওপর নির্ভর করে পাল্টা হামলা চালাতে পারে বলে ধারণা বিশ্লেষকদের।

এদিকে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে করা এক প্রতিবেদনে অ্যাক্সিওস জানিয়েছে, ইরানকে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে তারা দামেস্কের কূটনৈতিক কম্পাউন্ডে ইসরাইলি হামলার সঙ্গে ‘জড়িত ছিল না’ এবং এ হামলার বিষয়ে আগাম কোনো খবরও তাদের কাছে ছিল না। 

ইসরাইল অনেকদিন ধরেই সিরিয়ায় ইরানের সামরিক স্থাপনা ও তাদের ছায়া বাহিনীগুলোর ওপর হামলা চালিয়ে আসছিল। কিন্তু সোমবার প্রথমবারের মতো ইসরাইলি বাহিনী ইরানের দূতাবাস কম্পাউন্ডে হামলা চালালো। সিরিয়ায় নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত হোসেইন আকবরি এ হামলা থেকে রক্ষা পেয়েছেন। তিনি বলেছেন, ইরানের জবাব ‘দ্রুত ও যথাযথ’ হবে।

ইত্তেফাক/এএম