সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

শোভাযাত্রা পেছালো ১৫ মিনিট

আপডেট : ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০০

রমনার বটমূলে ছায়ানটের অনুষ্ঠান শেষ করে চারুকলা অনুষদ থেকে শুরু হওয়া মঙ্গল শোভাযাত্রায় যেন সবাই যোগ দিতে পারেন, সেজন্য পূর্বনির্ধারিত সময় থেকে ১৫ মিনিট পেছানো হয়েছে সময়। এবারের মঙ্গল শোভাযাত্রা শুরু হবে সকাল সোয়া ৯টায়। 

শোভাযাত্রাটি শাহবাগ মোড় হয়ে শিশুপার্কের সামনে দিয়ে ঘুরে ফের শাহবাগ হয়ে টিএসসিতে গিয়ে শেষ হবে। পরে বকুলতলার মঞ্চে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে বাউল গান।

এ বছর মঙ্গল শোভাযাত্রার পোস্টার বানাতে একটি কর্মশালা হয়েছিল, সেখান থেকে এ বি এম শাফিউল আলমের আঁকা একটি পোস্টার নির্বাচন করা হয়। 

মঙ্গল শোভাযাত্রা গবেষণা ও প্রসারকেন্দ্র আয়োজিত কর্মশালা এবং মুক্ত আহ্বানে পাওয়া পোস্টার থেকে এটি বাছাই করেন চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসান হোসেন, শিল্পী তরুণ ঘোষ ও শিল্পী শিশির ভট্টাচার্য্য। 

কর্মশালার ২৮টি পোস্টার নিয়ে এদিন চারুকলা অনুষদ প্রাঙ্গণে বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এটি উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এএসএম মাকসুদ কামাল।

প্রদর্শনী ঘুরে দেখার পর সাংবাদিকদের সামনে এসে তিনি প্রস্তুতিসহ সার্বিক বিষয়ে কথা বলেন। শোভাযাত্রা ১৫ মিনিট পেছানোর তথ্যও দেন তিনি। বলেন,  এবার যে প্রতিপাদ্য রয়েছে, তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই মোটিফ এবং শিল্পকর্মগুলো তৈরি করা হয়েছে।
 
গত শতকের আশির দশকে সামরিক শাসনের অর্গল ভাঙার আহ্বানে পহেলা বৈশাখে চারুকলা থেকে যে শোভাযাত্রা বের হয়েছিল; সেটিই পরে মঙ্গল শোভাযাত্রায় রূপ নেয়। ২০১৬ সালে ইউনেস্কোর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের স্বীকৃতিও পায় এ কর্মসূচি। 

সাধারণত চারুকলা অনুষদের শেষবর্ষের শিক্ষার্থীরা মঙ্গল শোভাযাত্রা আয়োজনের প্রস্তুতির দায়িত্ব পালন করে থাকে। সে অনুযায়ী এবার অনুষদের ২৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা প্রস্তুতির মূল দায়িত্বে রয়েছেন। তারা শোভাযাত্রার বিভিন্ন মোটিফ ও শিল্পকর্ম তৈরি করছেন।

ইত্তেফাক/এনএন