মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

নিজ দলের নেতাকে কটাক্ষ করে সমালোচনার মুখে কঙ্গনা

আপডেট : ০৫ মে ২০২৪, ২০:১৯

অভিনয় থেকে রাজনীতিতে পা দিয়েছেন বলিউড তারকা কঙ্গনা রনৌত। কিন্তু রাজনীতির মাঠে এসে তাল ধরে রাখতে পারছেন না তিনি। বিরোধী নেতাকে কটাক্ষ করতে গিয়ে ভুলবশত নিজ দল বিজেপির এক নেতাকেই আক্রমণ করে বসলেন কঙ্গনা।

লোকসভা নির্বাচনে হিমাচল প্রদেশের মাণ্ডি লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে লড়ছেন তিনি। রাজনীতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দেওয়ার পর থেকে আলোচনায় রয়েছেন কঙ্গনা। তার নানা মন্তব্য নিয়ে তিনি বারবারই উঠে আসেন খবরের শিরোনামে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুই নেতার নামই তেজস্বী। বিজেপির নেতার নাম তেজস্বী সূর্য আর বিরোধী দল আরজেডির নেতার নাম তেজস্বী যাদব। তাতেই তালগোল পাকিয়েছেন বলিউড কুইন।

শনিবার এক নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেওয়ার সময় রাহুল গান্ধীর পাশাপাশি তেজস্বী সূর্যের নাম নিয়ে কঙ্গনা বলেন, ‘এমন এক দল রয়েছে যেখানে দুর্নীতিগ্রস্ত এক রাজপুত্র রয়েছেন (রাহুল গান্ধী), যিনি আবার চাঁদে আলু চাষ করতে চান। অন্যদিকে তেজস্বী সূর্য যিনি আবার গুণ্ডামি করেন, মাছ খান। আবার অখিলেশ যাদব বোকা বোকা কথা বলেন। যারা এই দেশের ভাষা বোঝেন না এবং যারা এই দেশের সংস্কৃতি বোঝেন না, তারা কীভাবে এই দেশ চালাবেন?’

উল্লেখ্য, তেজস্বী সূর্য বেঙ্গালুরু দক্ষিণ থেকে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এবার। অন্যদিকে তেজস্বী যাদব বিহারের সাবেক উপ-মুখ্যমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি)-র নেতা। বিষয়টি নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তেজস্বী যাদব। কঙ্গনাকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘কে এই নারী?’

কর্ণাটকের বিজেপি নেতাকে ‘মাছ খাওয়া’ ও ‘গুণ্ডামি’ ইস্যুতে আক্রমণ করেন। আসলে কঙ্গনার নাম নেওয়া উচিত ছিল তেজস্বী যাদবের। কারণ কয়েক দিন আগেই নবরাত্রির সময়ে মাছ খাওয়া ও সেই ছবি পোস্ট করা ইস্যুতে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। ৯ এপ্রিল তেজস্বী যাদবের পোস্ট করা ভিডিওতে নির্বাচনের প্রচার কাজ শেষে তাকে মাছ ভাজা খেতে দেখা যায়।

কঙ্গনা হিমাচল প্রদেশের মন্ত্রী ও কংগ্রেস প্রার্থী বিক্রমাদিত্য সিংয়ের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

কিছুদিন আগে কঙ্গনাকে কটাক্ষ করে বিক্রমাদিত্য বলেছিলেন, ‘কঙ্গনার রাজ্যের ইতিহাস ও ভূগোল সম্পর্কে কোনো জ্ঞান নেই।’

ইত্তেফাক/এসএটি