মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

একটি সুযোগের অপেক্ষায় সোহান

আপডেট : ২০ মে ২০২৪, ০৯:০৫

সবশেষ ২০২২ সালে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপের সহঅধিনায়ক ছিলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার নুরুল সোহান। দলের বড় ভূমিকায় থাকলেও তা পালন করতে পারেননি তিনি। মূলত ছিলেন ব্যাট হাতে ব্যর্থ। পরে ঐ আসর শেষেই সোহান জায়গা হারায় স্কোয়াডে।

এরপর কেটে গেছে প্রায় দুই বছর। এর মধ্যে সোহানও ঘরোয়া ক্রিকেটে কিংবা বিপিএলে খেলেছেন চোখ ধাঁধানো ইনিংস, কিন্তু তাতেও বন্ধ হওয়া জাতীয় দলে প্রবেশের দরজা খোলেনি তার জন্য। তবে এখনো এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার অপেক্ষায় আছেন একটি সুযোগের। আর তা পেলেই তা কাজে লাগিয়ে আবারও স্কোয়াডে নিজের জায়গা করে নিতে চান। গতকাল মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমনটি জানিয়েছেন সোহান।

দল যখন বিশ্বকাপ খেলতে যুক্তরাষ্ট্রে তখন হোম অব ক্রিকেটে নিজের উন্নতি করতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন সোহান। সবশেষ তিনি গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই লাল-সবুজের জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছিলেন। ঐ আসরে সব মিলেয়ে পাঁচ ম্যাচ খেলেছিলেন। তাতে করেছিলেন ৪১ রান তার মধ্যে ভারতের বিপক্ষেই খেলেছিলেন ২৫ রানের ইনিংস। এরপর জায়গা হারান। তবে চেষ্টায় আছেন আবার জায়গা ফিরে পেতে। এ নিয়ে বলেন, ‘জাতীয় দল সব সময়ই একটা গর্বের জায়গা। সব সময় আমার কাছে খারাপ লাগে যখন আমি দলের বাহিরে থাকি। অবশ্যই চেষ্টা করব ঐ জায়গা ফেরত পাবার। আর ক্রিকেটটা খেলছি জাতীয় দলে খেলার জন্য। বিপিএলটা ভালো গিয়েছে, প্রিমিয়ার লিগটাও মোটামুটি ভালো গিয়েছে। কিন্তু আমার কাছে মনে হয় যে, সুযোগটা আসবে সেটা কতটুকু কাজে লাগাতে পারি ঐটাই আসলে গুরুত্বপূর্ণ।’

তবে সোহান মনে করেন, ভারতের বিপক্ষে বৃষ্টিভেজা ঐ ম্যাচটা জেতাতে পারলে হয়তো তার ক্যারিয়ারের চিত্র এখন অন্যরকম হতে পারত। এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি যখন শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ছিলাম, ভারতের বিপক্ষে হয়তো ১৯ রান প্রয়োজন ছিল (জয়ের জন্য) আমি ১৫-১৬ রান নিতে পেরেছিলাম। ঐখানে একটা বাউন্ডারির অপশন ছিল, চার বা ছয় হলে আমার মনে হয়, আমি যদি ঐটাও নিতে পারতাম তাহলে হয়তো সিনারিটা অন্যরকম হত। কিন্তু এটা আসলে..... এখন লক্ষ্য থাকবে যদি সুযোগ পাই তাহলে নিজের ঐ চ্যালেঞ্জটা থাকবে যে ভালোমতো ব্যাট করতে পারি।’

সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের টাইগার স্কোয়াডে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হিসেবে ছিলেন সোহান। তবে এবারের আসরের স্কোয়াডে তাকে বিবেচনায়ও রাখা হয়নি। আসলে তার ভুল কোথায় বা ঘরোয়া লিগে এত ভালো করার পরও কেন নির্বাচকদের সুনজরে আসেননি তিনি এ বিষয়ে জানতে চাইলে সোহান বলেন, ‘মানুষ মাত্রই ভুল এবং শুধু যে আমার ভুলের জন্যই সব কিছু হবে বিষয়টি এমনও না। অবশ্যই অনেক কিছুর ওপরই নির্ভর করে, দলের কমিটির ওপর নির্ভর করে, অনেক সিচুয়েশন থাকে তবে ধৈর্য রাখাটাও গুরুত্বপূর্ণ। সব কিছু মিলিয়ে নিজেকে ঐ ভাবে তৈরি করতে চাই যে, নিজের স্কিল এবং ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি, পরবর্তীতে যে সুযোগটা পাব সেটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করব।’

ইত্তেফাক/এএম