শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বিয়ের আসরে কনেকে চুমু, বরপক্ষকে বেধড়ক মারধর

আপডেট : ২৩ মে ২০২৪, ১৮:২১

বিয়ের আসরে কনেকে চুমু দিয়ে বিপাকে পড়েছেন বর ও তার পরিবার। ভালোবাসা প্রকাশস্বরুপ কনেকে চুমু দিয়েছিলেন বর। কিন্তু কনেপক্ষ তা স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেনি। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বাধে তুমুল সংঘর্ষ। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাপুরের অশোক নগরের বিয়ের আসর যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। কারণ মালাবদল অনুষ্ঠানের সময় কনেকে চুম্বন করে বর। তাতেই বিয়ের আসরে বরের পরিবারের ‍ওপর চড়াও হয় কনেপক্ষ। তাদের বেধরক মারধর করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বরের এমন আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। এরপরই কনের পরিবারের সদস্যরা লাঠি হাতে মঞ্চে উঠে বরের পরিবারকে মারধর করে। সংঘর্ষে কনের বাবাসহ ছয়জন আহত হয়েছেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশ ডাকা হয়। পুলিশ এসে দুই পরিবারের সাতজনকে আটক করে। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানায়, সোমবার রাতে কনের বাবা তার দুই মেয়ের বিয়ের আয়োজন করেছিলেন। প্রথম বিবাহ কোন ঝামেলা ছাড়াই শেষ হলেও, দ্বিতীয় অনুষ্ঠানটি আরও খারাপের দিকে মোড় নেয়।

কনের পরিবারের অভিযোগ, বর তাকে জোর করে মঞ্চে চুমু খেয়েছে। তবে বরের দাবি, কনেই তাকে চুমু খাওয়ার জন্য জোর করেছিল।

সিনিয়র হাপুর পুলিশ কর্মকর্তা রাজকুমার আগরওয়াল বলেছেন, এখন পর্যন্ত এই ঘটনায় কোনো পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পাওয়ার পরে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫১ ধারায় জনশান্তি বিঘ্নিত করার অভিযোগে এই ছয়জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসএটি