মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

অসময়ে থামল লেভারকুসেন

ছয় দশকের শিরোপা খরা কাটালো আতালান্টা

আপডেট : ২৪ মে ২০২৪, ১২:৪৭

পুরো মৌসুম ধরেই উড়ছিল জার্মান ক্লাব বায়ার লেভারকুসেন। গেল শনিবার ইতিহাস গড়ে জিতেছিল নিজেদের প্রথম বুন্দেসলিগা। এর পরই ক্লাবটির লক্ষ্য ছিল ট্রেবল জয়ের দিকে। টানা ৬১ জয়ে ধারণা করা হচ্ছিল, সেটিও হয়ে যাবে। তবে সেটা আর হলো না। গেল পরশু রাতে উয়েফা ইউরোপা লিগের ফাইনালে তাদের থামিয়ে দিয়েছে আতালান্টা। ছয় দশকের ট্রফি খরা কাটানোর পাশাপাশি চলতি মৌসুমে লেভারকুসেনকে প্রথম হারের স্বাদ দিলো ইতালিয়ান ক্লাবটি।

বুধবার রাতে ডাবলিনের আভিভা স্টেডিয়ামে চলতি মৌসুমের ইউরোপা ফাইনালে আতালান্টার নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড অ্যাডেমোলা লুকম্যানের হ্যাটট্রিকে ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারে লেভারকুসেন। ইতালিয়ান ক্লাবটির ১১৭ বছরের ইতিহাসে এটি তাদের দ্বিতীয় মেজর ট্রফি। তাদের প্রথম ট্রফিটি ছিল ১৯৬৩ সালের ইতালিয়ান কাপ। এই রাতে প্রথম হাফেই জার্মান চ্যাম্পিয়নদের জালে দুই গোল জড়িয়ে দেন আতালান্টার স্ট্রাইকার লুকম্যান। খেলার ৭৫ মিনিটে নিজের তৃতীয় গোল ও লেভাকুসেনের জালে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেন নাইজেরিয়ান এই ফরোওয়ার্ড। জার্মান চ্যাম্পিয়নরাও একাধিকবার ভয় ধরিয়েছিল আতালান্টার বক্সে। তবে ইতিলিয়ান ক্লাবটির দক্ষ ডিফেন্সের সঙ্গে পেরে ওঠেনি তারা।

ম্যাচ শেষে নিজের দল নিয়ে আতালান্টার হয়ে ইতিহাস গড়া কোচ জান পিয়েরো গাসপেরিনি বলেন, ‘ইতালির সবার জন্য খুবই গর্বের দিন, কারণ এটি ছিল অভিশপ্ত ট্রফি, এমনকি ইতালি থেকে শুধু ইন্টার ও রোমাই গত ২৫ বছরে ফাইনালে উঠেছিল এবং হেরেছিল। সেই অভিশাপই কাটিয়েছে এবার আতালান্টা, এটাকে ফুটবলের রূপকথা বললেও কম হবে না।’ 

আতালান্টাকে এই শিরোপা জেতানোর নায়ক নাইজেরিয়ান ফরোওয়ার্ড লুকম্যান বলেন, ‘আমার জীবনের সেরা রাত্রিগুলোর মধ্যে এটি একটি। দলের একটি আশ্চর্যজনক পারফরম্যান্স... আমরা এটা করেছি (লেভারকুসেনকে হারিয়েছি), আমরা পেরেছি!  বলার মতো অনেক শব্দ নেই, কিন্তু চমত্কার রাত... আমি খুশি যে আমরা জিতেছি। আমি খুব খুশি। আজ রাতে আমরা ইতিহাস তৈরি করেছি।’ 

এদিকে গেল বছরের ২৭ মে থেকে অপরাজেয় লেভারকুসেন। গত পরশু রাতে তাদের সেই দৌড় থেমে যাওয়ায় কষ্ট পেলেও জার্মান ক্লাবটির কোচ জাভি আলনসো নিজের দল নিয়ে বেশ গর্বিত। শিরোপা হারানোর পর স্প্যানিশ এই কোচ বলেন, ‘৫২তম ম্যাচে এসে পরাজয়টা স্বাভাবিক কিছু নয়। স্বাভাবিক ব্যাপার হলো মৌসুমের শুরুর দিকেই হেরে যাওয়া। অথচ সেই পরাজয় এলো এমন এক ম্যাচে, এটিই কষ্ট দিচ্ছে। আমরা এই মৌসুমে যা অর্জন করেছি, তা ব্যতিক্রমী ও অসাধারণ এবং তা নিয়ে খুবই গর্বিত হওয়া উচিত আমাদের। তবে আজকের রাতটি যন্ত্রণাময়।’

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন