রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বড়ো দলগুলোর জয়

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ২১:৩০

এমবাপ্পে ও স্টার্লিংয়ের হ্যাটট্রিক

চাপ কমল রিয়াল কোচ জিদানের

 স্পোর্টস ডেস্ক

রিয়াল মাদ্রিদ এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম জয়ের দেখা পেল। গালাতাসারায়ের মাঠে পাওয়া ১-০ জয়ে চাপ কমল স্প্যানিশ ক্লাবটির কোচ জিনেদিন জিদানের। গত মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেলাগুলোয় এছাড়াও সবকটি বড়ো দলই জিতেছে।

এর মধ্যে ম্যানচেস্টার সিটি, পিএসজি ও টটেনহ্যাম হটস্পার বিপক্ষের জালে পাঁচবার বল পাঠিয়েছে। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো গোল না পেলেও জিতেছে তার দল জুভেন্তাস। ক্লাব ব্রাগার মাঠে পিএসজির ৫-০ জয়ে হ্যাটট্রিক করেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। রাহিম স্টার্লিংয়ের হ্যাটট্রিকে আটালান্টার বিরুদ্ধে ৫-১ গোলে জেতে সিটি।

রিয়াল এবার মহাদেশীয় এই টুর্নামেন্টে সুবিধা করতে পারছিল না। কারণ গ্রুপ শীর্ষে থাকা পিএসজির বিপরীতে রিয়াল গালাতাসারায়ের মাঠে খেলতে যায় কেবল এক পয়েন্ট নিয়ে। সঙ্গতকারণেই জিদানের দলের মূল লক্ষ্যই ছিল অধরা জয়ের সন্ধান করা। ক্লাবটির হয়ে নিজের শততম ম্যাচে টনি ক্রুসের গোলে জয়টির পর রিয়াল ‘এ’ গ্রুপের সর্বনিম্ন অবস্থান থেকে উঠে এলো দ্বিতীয় স্থানে।

এ খেলাটির আগে স্পেনের গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছিল যে গালাতাসারায়ের মাঠে জিততে না পারলে জিদানকে বরখাস্ত করা হতে পারে। কিন্তু অষ্টম মিনিটে এডেন হ্যাজার্ডের জোগান থেকে টনি ক্রুসের শট জাল খুঁজে নেয়। এরপর ১৩ বারের ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন রিয়াল গোলটি ধরে রাখতে সক্ষম হওয়ায় হাফ ছেড়ে বাঁচেন জিদান।

পিএসজি অবশ্য ক্লাব ব্রাগার মাঠে জিতে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। নেইমারহীন দলটিকে একাই টানছেন এমবাপে। সম্প্রতি ইনজুরি থেকে উঠে আসা এমবাপে এদিন বেঞ্চেই ছিলেন। বিরতির পর মাঠে নামেন ৬১, ৭৯ ও ৮৩ মিনিটে গোল তিনটি দেন এই ফরাসি। অপর দুই গোল দেন মাউরো ইকার্দি। হাফ ছেড়ে বেঁচেছেন টটেনহ্যাম হটস্পার কোচ মরিচিও পচেত্তিনোও। আগের রাউন্ডে বায়ার্নের কাছে নিজেদের মাঠে ৭-২ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল স্পার্সরা। পচেত্তিনোর দল এদিন নিজেদের খুঁজে পায় এবং অতিথি রেডস্টার বেলগ্রেডকে হারানোয় দুটি করে গোল দেন হ্যারি কেইন ও সন হিউং-মিন। অপর গোলটি করেন এরিক লামেলা।

পচেত্তিনো এ জয়ের পর জানান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের জয়টি তাদের আত্মবিশ্বাস পুনরুদ্ধার করেছে। এমনটি বলার কারণ চলতি মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টটেনহ্যাম ১৩ খেলায় কেবল চারটিতে জিতল। গতবারের ফাইনালিস্টদের আর্জেন্টাইন কোচ আরো বলেন, টটেনহ্যাম সমর্থকরা যা আশা করে তা পেতে তিনি নিজেকে ২০০ ভাগ উজাড় করে দেবেন।

ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা অবশ্য আটালান্টাকে আতিথ্য দেওয়ার আগে বলেছেন ইংলিশ ক্লাবটি এখনো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়ের জন্য প্রস্তুত নয়। তারপরই এলো বিশাল এই জয়। কোচ গার্দিওলা দলের জয়ে অবদান রাখায় হ্যাটট্রিক করা স্টার্লিংকে ভূয়সী প্রশংসায় ভাসান। স্টার্লিং চলতি মৌসুমে সিটির হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৩ খেলায় ১২ গোল করেছেন।