ঢাকা বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৬ মাঘ ১৪২৭
২১ °সে

যুবককে হত্যা করে ফ্লাইওভারে ফেলে গেলো দুর্বৃত্তরা

যুবককে হত্যা করে ফ্লাইওভারে ফেলে গেলো দুর্বৃত্তরা
ছবি: সংগৃহীত

শ্বাসরোধ করে হত্যার পর এক যুবকের লাশ রাজধানীর কুড়িল ফ্লাইওভারের ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাত তিনটার দিকে পুলিশ গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় ওই যুবকের লাশটি উদ্ধার করে।

নিহত যুবকের বয়স আনুমানিক ৪০ বছর হবে। তার পরনে শার্ট ও প্যান্ট। যুবকের আনুমানিক উচ্চতা পাঁচ ফুট দুই ইঞ্চি। মুখমণ্ডল গোলাকার। তবে তার নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি, সেকারণে বর্তমানে তার লাশটি অজ্ঞাত হিসেবে মর্গে রাখা হয়েছে।

ভাটারা থানার ওসি মোক্তারুজ্জামান বলেন, লাশের গলায় গামছা পেঁচানো ছিল। গলায় শ্বাসরোধ করার দাগ রয়েছে। এছাড়া শরীরের কোথাও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যার পর ফ্লাইওভারে লাশটি ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা।

তিনি আরো জানান, নিহত যুবকের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। এ কারণে তার আঙুলের ছাপ সংগ্রহ করা হয়েছে। জাতীয় পরিচয়পত্র সার্ভারে আঙ্গুলের ছাপ মিলিয়ে পরিচয় নিশ্চিত করার কাজ চলছে।

ওসি জানান, এ ঘটনায় অজ্ঞাত আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

এদিকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে রাতেই আলামত সংগ্রহ করেছে।

পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলেন, কুড়িল ফ্লাইওভারটি ব্যস্ততম হলেও রাত ১টার পর গাড়ি চলাচল কম থাকে। অন্য কোথাও হত্যার পর লাশ সেখানে ফেলে রাখা হয়েছে। ছিনতাইয়ের কবলে পড়তে পারে বলেও মনে হচ্ছে না। কারণ তার হাতের ঘড়ি ও আংটি খোয়া যায়নি।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৯ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন