ঢাকা শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
২৫ °সে

পিস্তল হাতে পাপিয়ার টিকটক ভিডিও ভাইরাল

পিস্তল হাতে পাপিয়ার টিকটক ভিডিও ভাইরাল
শামিমা নুর পাপিয়া। ছবি: সংগৃহীত

যুব মহিলা লীগ নেত্রী শামিমা নুর পাপিয়ার সাম্রাজ্য ছিলো পাপের। অবৈধ অস্ত্র ও মাদকের ব্যবসা, অর্থ পাচার, জোর করে পতিতাবৃত্তি করাই ছিলো তার প্রধান পেশা।

গ্রেফতারের পর থেকে পাপিয়ার অবৈধ সব কর্মকাণ্ডের তথ্য একের পর এক বেড়িয়ে আসছে। এবার পাপিয়ার পিস্তলসহ একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, এক যুবক বসে আছেন। একটি পিস্তল তাক করা তার দিকে। হঠাৎ গুলির শব্দ। এরপরই দেখা মেলে পাপিয়ার। তার হাতে পিস্তল। এই ভিডিওতে ‘গোলাবি আঁখে’ শিরোনামের একটি গানে পারফর্ম করতে দেখা যায় তাকে।

এদিকে শামিমা নূর পাপিয়ার বাসায় মিলেছে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র-গুলি, বিপুল পরিমাণ মদ ও নগদ টাকা। রবিবার তার ফার্মগেটের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব।

পাপিয়া নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে দেশত্যাগের সময় পাপিয়া (২৮) ও তার স্বামী মফিজুর রহমানসহ চারজনকে আটক করে র‌্যাব-১। গ্রেফতারের পর তাকে যুব মহিলা লীগ থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়।

এদিকে র‌্যাবের অভিযানে বেরিয়ে এসেছে পাপিয়ার বিলাসবহুল জীবন ও গাড়ি-বাড়িসহ বিপুল সম্পদের তথ্য।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল শাফী উল্লাহ বুলবুল বলেন, পাপিয়া ও মফিজুর খুব অল্প সময়েই বিপুল পরিমাণ সম্পদ ও অর্থবিত্তের মালিক হয়েছেন। এছাড়া তার যে পিস্তল দেখা গেছে তার কোনো কাগজ নেই।

তিনি আরও বলেন, পাপিয়া-মফিজুর দম্পতির আয়ের অবৈধ উত্সগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে নারীদের দিয়ে জোরপূর্বক অনৈতিক কাজ করানো।

চাকরি দেওয়ার নাম করে নরসিংদী থেকে তরুণীদের ঢাকায় নিয়ে আসতেন তিনি। এরপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের মাধ্যমে তাদের অনৈতিক কাজে যুক্ত হতে বাধ্য করা হতো।

নরসিংদীতে পাপিয়া-মফিজুর দম্পতির একটি ক্যাডার বাহিনী রয়েছে। ঐ ক্যাডার বাহিনীর নাম ‘কিউ অ্যান্ড সি’।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
০৪ এপ্রিল, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন