ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
২৬ °সে


ঢাবি শিক্ষার্থী হাফেজ কাওসারের মা-সন্তানদের কান্না থামছেই না

ঢাবি শিক্ষার্থী হাফেজ কাওসারের মা-সন্তানদের কান্না থামছেই না
কাওসারের ভাই ও মায়ের কান্না। ছবি: ইত্তেফাক

সকাল ৮টা। ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গের সামনে মানুষের ভীড়। স্বজনদের আহাজারিতে পরিবেশ ভারী। কেউ ডুকরে কাঁদছেন। কেউ আবার কাঁদছেন চিৎকার করে। এসময় দেখা গেলে মা ও ছেলে অঝরে কান্না করছেন।সান্ত্বনা দেওয়ার আগেই রাস্তায় বসে পড়লেন তারা।

পুরান ঢাকার চকবাজারে আগুনের ঘটনায় তাদের পরিবারের এক সদস্য মারা গেছেন বলে জানতে পেরেছেন তারা। মারা যাওয়া ছেলের নাম কাওসার। এ কথা শুনে বার বার অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছেন তার মা। জ্ঞান ফিরে আসলে বিলাপ করছেন।

কাওসারের ছোট ফুটফুটে দুই সন্তান রয়েছে। বাবার সন্ধানে তারাও এসেছে মর্গের সামনে। বাবাকে না দেখতে পেয়ে কান্না করছে তারা। আর স্বামীকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে আছেন কাওসারের স্ত্রী মুক্তা।

মাঝে কাওসার। দুই পাশে তার দুই সন্তান। ছবি: সংগৃহীত

মর্গের সামনে থাকা কাওসারের বন্ধু আরিফ বলেন, কাওসার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ১৭তম হয়েছিলেন। পড়াশোনার পাশাপাশি চকবাজারে মদিনা মেডিকেল হল ক্লিনিক চালাতেন কাওসার। ঘটনার দিন ওই ক্লিনিকেই ছিলেন তিনি।

আরো পড়ুন: যে কোন সময় ধ্বসে পড়তে পারে ওয়াহিদ ম্যানশন: বুয়েটের বিশেষজ্ঞ দল

কাওসারের ভাই ইলিয়াস বলেন, আমি ভাইকে অনেক বার ফোন দিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি। আমরা জানতে পেরেছি আমার ভাই মারা গেছেন।

তিনি জানান, মা, ভাই, স্ত্রী ও দুই সন্তানসহ কাওসার থাকতেন চকবাজারে। আগুনের সময় ক্লিনিকের ভবনের গেট বন্ধ ছিল। খোলা থাকলে হয়তো তাকে খুঁজে পাওয়া যেত।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৫ মে, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন