ভাঙ্গায় অর্ধেকে নেমে এসেছে পেঁয়াজের দাম

ভাঙ্গায় অর্ধেকে নেমে এসেছে পেঁয়াজের দাম
কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। ছবি: ইত্তেফাক

এক রাতের ব্যবধানে পাইকারি বাজারে অর্ধেকে নেমে এসেছে পেঁয়াজের দাম। গত শুক্রবার ফরিদপুরের ভাঙ্গার বিভিন্ন বাজারে মাত্র ১২০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হতে দেখা গেছে। একই সঙ্গে নতুন মুড়িকাটা পেঁয়াজ ৮০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এর আগে বৃহস্পতিবার প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছিল।

ভাঙ্গা বাজার একটি বড় পাইকারি আড়ৎ রয়েছে। সেখানে প্রতিদিন প্রায় অর্ধশতাধিক দোকানে বিভিন্ন কাঁচামাল পণ্য বিক্রি হয়ে থাকে। পেঁয়াজের ব্যাপক উৎপাদনস্থল হিসেবে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও নগরকান্দার বেশ নাম রয়েছে। গত কয়েকদিনে পেঁয়াজের দাম আকাশচুম্বী হওয়ায় ভাঙ্গার কাঁচামাল আড়তেও বিক্রি কম হয়েছে। খুচরা ক্রেতারা ২৫০ টাকা দরে বেশ কয়েকদিন পেঁয়াজ ক্রয় করেছে।

সরকারের ঊর্ধ্বতন মহলের দ্রুতগতিতে পেঁয়াজ আমদানি ও একই সঙ্গে অপরিপক্ব মুড়ি পেয়াজ বাজারে চলে আসায় পাইকারি বাজারে পুরাতন পেঁয়াজ প্রতি কেজি ১২০ টাকা এবং মুড়িকাটা পেঁয়াজ ১০০ টাকার নিচে বিক্রি হতে শুরু করে। পেঁয়াজের দাম হঠাৎ করে কমে যাওয়ায় বেশ খুশি খরিদারগণ। তবে হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম নিম্নমুখী হওয়ায় বেশ লোকসানে পড়েছেন পূর্বের দরে কিনে রাখা কিছু ব্যবসায়ী।

ভাঙ্গা বাজারে পাইকারি আড়তদার রাজ্জাক মিয়া জানান, যেখানে ২৫০ টাকা পেঁয়াজ ছিল হঠাৎ করে তা অর্ধেকেরও কম দামে নেমে আসায় আমরা কিছুটা লোকসানের সম্মুখীন হচ্ছি। আমাদের আড়ৎসহ বেশ কয়েকটি আড়তে বেশি দামে পেঁয়াজ কেনা ছিল এখন আমরা তা লোকসান দিয়েই বিক্রি করে দিচ্ছি। আগামীতে পেঁয়াজের দাম আরো অনেক কমে যাবে, যখন মুড়িকাটা পেঁয়াজ কৃষকের ঘরে পুরোদমে উঠতে শুরু করবে।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত