ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬
৩২ °সে


মিন্নিকে আইনের আওতায় আনার দাবি রিফাতের বাবার

মিন্নিকে আইনের আওতায় আনার দাবি রিফাতের বাবার
বরগুনা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ। ছবি : সংগৃহীত

বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যার ঘটনায় রিফাতের স্ত্রী মিন্নিকে আইনের আওতায় আনার দাবি করে গতকাল শনিবার রাত আটটায় বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন নিহত রিফাতের পিতা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ। মিন্নি এ হত্যা মামলার ১ নম্বর সাক্ষী। সম্মেলনে এই হত্যাকাণ্ডে মিন্নি জড়িত ছিল এমন সন্দেহে তিনি ১০টি যুক্তি তুলে ধরে লিখিত বক্তব্য রাখেন।

বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, ২৫ জুন সকাল ৯টায় প্রধান আসামি নয়ন বন্ডের বাড়িতে যায় রিফাতের স্ত্রী মিন্নি। রিফাতকে ছাড়া মিন্নি প্রতিদিন কলেজে গেলেও ঘটনার দিন তাকে ডেকে নিয়ে যায় মিন্নি। ঘটনার আগে রিফাত মিন্নিকে মোটরসাইকেলে কলেজ থেকে নিয়ে আসার জন্য গেলে মিন্নি মোটরসাইকেল পর্যন্ত এসে সন্ত্রাসীদের উপস্থিত না দেখে কালক্ষেপণের জন্য পুনরায় কলেজের দিকে ফিরে যায়।

ভিডিও ফুটেছে আসামিরা রিফাত শরীফকে মারপিট করার সময় মিন্নি অত্যন্ত সাবলীল ভঙ্গিতে পিছন পিছন হাঁটছিল। যা একজন স্ত্রী’র পক্ষে সম্ভব নয় বলে মনে করেন দুলাল শরীফ। এছাড়া রিফাত শরীফকে কোপানোর সময় মিন্নি আসামিকে জাপটে ধরেছে কিন্তু আসামিদের কেউই মিন্নির ওপর চড়াও হয়নি।

রক্তাক্ত অবস্থায় রিফাত রিকশাযোগে হাসপাতালে যাওয়ার সময় মিন্নি তার ব্যাগ ও স্যান্ডেল গোছানোর কাজে ব্যস্ত ছিল। এবং আসামিদের একজন রাস্তা থেকে ব্যাগ তুলে মিন্নির হাতে দেয়। এমনকি রিফাত শরীফকে বরিশাল মেডিক্যালে নেওয়ার সময়ও মিন্নি তার সঙ্গে যায়নি।

সার্বিক বিষয়ের ওপর সম্প্রতি একটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে নিহত রিফাত শরীফের পিতা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ মিন্নিকে ঘটনার নেপথ্যের কারিগর হিসেবে আখ্যায়িত করে তাকে আইনের আওতায় আনার দাবিতে এ সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। এমনকি এসব ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার হওয়া সত্যেও পুলিশ কেন এখনো মিন্নিকে আইনের আওতায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করছে না, এমন প্রশ্ন তোলেন তিনি।

অপরদিকে মিন্নির বিষয়ে পুলিশের নিকট ইতিপূর্বে কোনো অভিযোগ করছেন কী না এমন প্রশ্নে এখন পর্যন্ত করেননি বলে জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নিহত রিফাতের বড় চাচা বুড়িরচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল আজিজ শরীফ, মেজ চাচা আবদুল ছালাম শরীফ প্রমুখ।

আরো পড়ুন : বিজেপিতে যাচ্ছেন ধোনি?​

এদিকে মিন্নির ব্যাপারে আনীত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে তার পিতা মোজাম্মেল হক কিশোর বলেন, রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রভাবশালী আসামিদের চাপের মুখে অথবা কোনোরূপ প্রলোভনের বশবর্তী হয়ে দুলাল শরীফ সংবাদ সম্মেলনে এমন বক্তব্য রেখেছেন। যাতে মামলাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত হয় তিনি এজন্য এমন করেছেন।

তিনি আরো জানান, মিন্নিকে পুলিশের সহায়তায় ডাক্তার দেখিয়ে বাড়িতে আনা হয়েছে। সে এখন গুরুতর অসুস্থ।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জুন বরগুনা কলেজের সামনে রাস্তায় প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির উপস্থিতিতে কুপিয়ে হত্যা করে আসামিরা।

ইত্তেফাক/ইউবি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন